এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
বুধবার, 10 ফেব্রুয়ারী 2016 14:50

যারা গরুর গোশত খায় তাদের হরিয়ানায় আসার দরকার নেই: অনিল ভিজ

যারা গরুর গোশত খায় তাদের হরিয়ানায় আসার দরকার নেই:  অনিল ভিজ

১০ ফেব্রুয়ারি (রেডিও তেহরান): ভারতের বিজেপি শাসিত হরিয়ানার স্বাস্থ্যমন্ত্রী অনিল ভিজ বিতর্কিত মন্তব্য করে বলেছেন, ‘যারা গরুর গোশত না খেয়ে বাঁচতে পারবে না তাদের হরিয়ানায় আসার প্রয়োজন নেই।’ মন্ত্রীর মতে, ‘রাজ্যে কঠোর গো-সংরক্ষণ আইন চালু থাকায় এ ধরণের লোকদের হরিয়ানায় আসা উচিত নয়।’

 

স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে জিজ্ঞাসা করা হয় রাজ্য সরকার বিদেশিদের জন্য রাজ্যে গরুর গোশত খাওয়ার অনুমতি দেয়ার চিন্তা-ভাবনা করছে সেক্ষেত্রে কী হবে? জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খাট্টার সোমবার এই বিষয়ে স্পষ্টীকরণ দিয়ে রাজ্যে গরুর গোশত খাওয়ার জন্য বিদেশিদের ক্ষেত্রে ছাড় দেয়ার কোনো পরিকল্পনার কথা অস্বীকার করেছেন।’

 

অনিল ভিজ গত বছর গরুকে জাতীয় পশু ঘোষণার দাবি করে সাফাই দিয়েছিলেন এবং এই ইস্যুতে অনলাইন সার্ভে শুরু করা হয়েছিল।

 

এর আগে মিডিয়াতে খবর ছড়িয়েছিল হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যে বিদেশিদের জন্য গরুর গোশত খাওয়ায় ছাড় দিতে চলেছেন। যদিও সোমবার তিনি এ নিয়ে সাংবাদিকদের জানান, বিদেশিদের জন্য এ ধরণের কোনো পরিকল্পনা নেই।

 

হরিয়ানা বিধানসভায় গত বছর মার্চে ‘গো-বংশ সংরক্ষণ এবং গো-সংবর্ধন বিল’ পাস হয় এবং গত নভেম্বরে তা চালু হয়। এ সংক্রান্ত আইনে হরিয়ানায় গরু পাচার, জবাই এবং গরুর গোশত খাওয়া নিষিদ্ধ। এজন্য তিন থেকে দশ বছর পর্যন্ত সাজার ব্যবস্থা রয়েছে।

 

গত বছর অক্টোবরে হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খাট্টার ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, ‘মুসলিমরা ভারতে থাকতে পারে কিন্তু তাদের গরুর গোশত খাওয়া ছেড়ে দিতে হবে। কারণ গরু ভারতে ধর্মীয় বিশ্বাসের সঙ্গে জড়িয়ে আছে।’

 

পরে অবশ্য সমালোচনার মুখে পড়ে এ ধরণের কথা বলেননি বলে সাফাই দেন খাট্টার। যদিও তারপরেই ওই পত্রিকা মনোহর খাট্টারের অডিও সাক্ষাৎকার প্রকাশ করে দেয়।#

 

রেডিও তেহরান/এমএএইচ/এআর/১০

 

 

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন