এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
শনিবার, 30 এপ্রিল 2016 11:33

পশ্চিমবঙ্গে ৫ম দফার ভোটে সহিংসতা, মমতাসহ হেভিওয়েটদের ভাগ্য নির্ধারণ

পশ্চিমবঙ্গে ৫ম দফার ভোটে সহিংসতা, মমতাসহ হেভিওয়েটদের ভাগ্য নির্ধারণ

ভারতের মুখ্য নির্বাচন কমিশনার ড. নাসিম জাইদির কঠোর অনুশাসনের মধ্য দিয়ে পশ্চিমবঙ্গে আজ পঞ্চম দফায় বিধানসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এ পর্বে তৃণমূল নেত্রী ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, বাম-কংগ্রেস জোট প্রার্থী দীপা দাশমুন্সি, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, কোলকাতার মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিম, জাভেদ খান, পার্থ চট্টোপাধ্যায় আবদুল কয়েকজন প্রভাবশালী নেতা-নেত্রীর ভাগ্য নির্ধারণ হবে।

 

আজ (শনিবার) সকাল থেকে বিভিন্ন কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে ভোটারদের দীর্ঘ লাইনের মাধ্যমে। অনেকেই তীব্র দাবদাহের হাত থেকে বাঁচতে বেলা বাড়ার আগে সাত সকালে নির্বাচন কেন্দ্রে উপস্থিত হয়েছেন।

 

পঞ্চম দফায় মোট ৫৩টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এরমধ্যে দক্ষিণ কোলকাতায় ৪ টি, দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলায় ৩১ টি এবং হুগলী জেলায় ১৮ টি কেন্দ্র রয়েছে।

 

নির্বাচন অবাধ এবং শান্তিপূর্ণ করতে গতকাল দিল্লি থেকে দেশের মুখ্য নির্বাচন কমিশনার ড. নাসিম জাইদি পশ্চিমবঙ্গের মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল গুপ্ত’র সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স করেন। নির্বাচন কেন্দ্রের নিরাপত্তায় মোতায়েন রয়েছে ৫৪ হাজার ৪০০ কেন্দ্রীয় বাহিনী। এছাড়া ২৬ হাজার রাজ্য পুলিশ মোতায়েন রয়েছে বিভিন্ন যায়গায়। নির্বাচন উপলক্ষে বিভিন্ন ক্লাব, হোটেল এমনকি কারাগারেও বিশেষ নজরদারি চালানো হচ্ছে। বিভিন্ন এলাকায় রাজ্য সীমান্ত এবং আন্তর্জাতিক সীমান্তে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে বিভিন্ন যায়গায় সিসিটিভি ক্যামেরার মাধ্যমে নজরদারির পাশাপাশি ভিডিও চিত্র ধারণ করা হচ্ছে।

 

আজ সকাল ১০ টার মধ্যে খানাকুল, সোনারপুর, বেহালা, ভাঙড়, হরিপাল সহ বিভিন্ন যায়গায় শাসক দল বিরোধী নির্বাচনি এজেন্টদের ভোট গ্রহণ কেন্দ্রে ঢুকতে বাধা দেয়া, হুমকি দেয়া এবং মারধর করার অভিযোগ উঠেছে।

 

আরামবাগে বাম সমর্থককে মারধর করে মাথা ফাটানোর অভিযোগে ২ তৃণমূল সমর্থককে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। সোনারপুরে দু’জন বাম কর্মীকে মারধর করা হলে একজনকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছে। ভাঙরে তৃণমূল-সিপিএম সংঘর্ষে ২ জনের মাথা ফেটেছে এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। মগরাহাটে অবাঞ্ছিত জমায়েত হটাতে পুলিশকে লাঠি চালাতে হয়।

 

সাতগাছিয়াতে তৃণমূল প্রার্থী সোনালি গুহ’র কেন্দ্রে কারচুপি’র অভিযোগ উঠেছে। সোনালি গুহ আজ একটি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়লে সাময়িকভাবে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। তৃণমূলের বিরুদ্ধে এ সব অভিযোগের আঙুল উঠলেও তাদের প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

 

আজ ভবানিপুর, কোলকাতা বন্দর, কুলপি, হরিপাল, চাপদানিসহ বেশ কয়েকটি বুথে ইলেকট্রনিক ভোট যন্ত্র বিকল হওয়ায় নির্বাচন সাময়িকভাবে বিঘ্নিত হয়।

 

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন