এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
সোমবার, 02 মে 2016 14:06

পাকিস্তানের সঙ্গে হুররিয়াত নেতাদের বৈঠকের বিষয়ে নয়াদিল্লির ইউ-টার্ন

পাকিস্তানের সঙ্গে হুররিয়াত নেতাদের বৈঠকের বিষয়ে নয়াদিল্লির ইউ-টার্ন

জম্মু-কাশ্মিরের হুররিয়াত নেতাদের সম্পর্কে পুরোনো মনোভাব পরিবর্তন করেছে নয়া দিল্লি। হুররিয়াত নেতারা পাকিস্তানি নেতাদের সঙ্গে কথাবার্তা বললে আপত্তি করবে না বিজেপি নেতৃত্বাধীন কেন্দ্রীয় সরকার।

 

গত সপ্তাহে সংসদে এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ভি কে সিং বলেন, ‘জম্মু-কাশ্মির ভারতের একটি অবিচ্ছিন্ন অঙ্গ এবং কাশ্মিরি নেতারাও ভারতীয় নাগরিক। এজন্য তারা যেকোনো দেশের প্রতিনিধিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ এবং কথা বলতে পারেন।’ ভি কে সিং অবশ্য স্পষ্ট বলেন, ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে আলোচনায় কোনো তৃতীয় পক্ষকে আনা হবে না।

 

তিনি বলেন, ‘ভারতের অবস্থান হল, পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনায় কোনো তৃতীয় পক্ষের ভূমিকা থাকবে না। যেটা শিমলা সমঝোতা এবং লাহোর ঘোষণাতেও বলা হয়েছে।’

 

২০১৪ সালে পররাষ্ট্র সচিব পর্যায়ে সংলাপের আগে হুররিয়াত নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করার পাক দাবি নাকচ করে দেয় ভারত। পরবর্তীতে এজন্য পররাষ্ট্র সচিব পর্যায়ে দুই দেশের মধ্যে প্রস্তাবিত সংলাপ বন্ধ হয়ে যায়। ২৫ আগস্ট ইসলামাবাদে দুই দেশের পররাষ্ট্র সচিব পর্যায়ের বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। তার আগে নয়াদিল্লিতে পাকিস্তানের হাই কমিশনার আব্দুল বাসিতের সঙ্গে হুররিয়াত নেতা শাব্বির আহমদ শাহের বৈঠক হওয়ায় সচিব পর্যায়ের বৈঠক বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্রীয় সরকার। সেসময় ভারতের পররাষ্ট্র সচিব পাক হাই কমিশনারকে জানিয়ে দেন, ‘ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে পাকিস্তানের নাক গলানো অনভিপ্রেত।’

 

শাব্বির শাহ অবশ্য ওই সময় বলেছিলেন, ‘পাক হাই কমিশনারের সঙ্গে আলোচনা নিয়ে হৈচৈ করা অর্থহীন। অটলজিও (সাবেক বিজেপি প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী) আমাদের সঙ্গে কথা বলেছিলেন। মোদিজির উচিত এই আলোচনাকে ইতিবাচকভাবে নেয়া।’

 

২০১৫ সালের আগস্টে পাক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টার ভারতে আসার কথা থাকলেও সেসময় নয়াদিল্লিতে নিযুক্ত পাক হাই কমিশনার হুররিয়াত নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করায় ভারত আলোচনা বন্ধের ঘোষণা দেয়। পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ বলেছিলেন, পাকিস্তানকে ভারত অথবা কাশ্মিরি নেতাদের মধ্যে একটিকে বেছে নিতে হবে।

 

হুররিয়াত নেতাদের সম্পর্কে এভাবে কেন্দ্রীয় মোদি সরকার কঠোর মনোভাব নিয়ে আসলেও আচমকা পুরোনো অবস্থান থেকে কার্যত ১৮০ ডিগ্রি অবস্থান বদল করেছে ভারত।#

 

এমএএইচ/এআর/২

 

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন