এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
বুধবার, 04 মে 2016 16:13

‘হুররিয়াত ও কাশ্মির ইস্যুতে সরকার গিরগিটির মতো রং বদল করছে’

‘হুররিয়াত ও কাশ্মির ইস্যুতে সরকার গিরগিটির মতো রং বদল করছে’

হুররিয়াত কনফারেন্স ও জম্মু-কাশ্মির ইস্যুতে ইউ-টার্ন নেয়ায় ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের তীব্র সমালোচনা করেছে হিন্দুত্ববাদী দল শিবসেনা। এনডিএ জোটের শরীক দল শিবসেনার মুখপত্র ‘সামনা’য় সরকারকে গিরগিটির সঙ্গে তুলনা করা হয়েছে।

 

আজ (বুধবার) ‘সামনা’র সম্পাদকীয়তে শিবসেনা বলেছে, ‘হুররিয়াত ও কাশ্মির ইস্যুতে কেন্দ্রীয় সরকার যেভাবে ডিগবাজি খেয়েছে- এরকম যদি কংগ্রেস করত তাহলে তারা পাকিস্তানি এজেন্টে পরিণত হতো। সংসদের কাজকর্ম অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ করে দেয়া হতো এবং তখন বলা হতো এটা দেশের স্বার্থে এবং জাতীয় নিরাপত্তার জন্য করা হচ্ছে। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকার পাক ঘনিষ্ঠ এবং ভারত বিরোধী বলে প্রমাণিত হুররিয়াত নেতাদের কোলে বসিয়ে আদর করছে।’

 

শিবসেনা বলেছে, ‘মোদি কাল পর্যন্ত বলতেন কাশ্মির বাদে অন্য বিষয়ে পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনা হবে। কিন্তু এখন তার ভূমিকা পরিবর্তন হয়েছে। যে বোকামির কাজ কংগ্রেসও করেনি, তা বর্তমান এই সরকার করেছে। হুররিয়াত এবার কাশ্মির ইস্যু নিয়ে পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনা করতে পারবে তাদের এমন সুবিধা দেয়া হয়েছে।’

 

বিজেপিকে টার্গেট করে শিবসেনা বলেছে, ‘পাকিস্তানের প্রতি সহানুভূতিশীল এবং সন্ত্রাসীদের শক্তি দেয়া পিডিপিকে ক্ষমতার জন্য বিজেপি বাড়িতে এনে বসিয়েছে। কিন্তু এখন কাশ্মির ইস্যুতে তাদের পরিবর্তিত অবস্থান মানুষের সামনে প্রকাশ হয়ে পড়েছে।’

এ প্রসঙ্গে আফজাল গুরু সন্ত্রাসী না মুক্তিযোদ্ধা- তা নিয়ে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছে শিবসেনা।

 

কেন্দ্রীয় সরকারের উদ্দেশ্য সম্পর্কে প্রশ্ন তুলে তারা বলেছে, ‘কাশ্মির ইস্যুতে কেন্দ্রীয় সরকারের ইউ-টার্নে হিন্দুত্ববাদী এবং দেশপ্রেমীরা বিস্মিত হয়েছে। এ নিয়ে বিউগল ফোঁকা ব্যক্তিরা এখন বোবা এবং বধির হয়ে গেছে। হুররিয়াতের সঙ্গে কী গোপন চুক্তি হয়েছে তা প্রকাশ্যে আসা উচিত।’

 

হুররিয়াত ইস্যুতে সরকার যেভাবে রং পরিবর্তন করেছে তাতে গিরগিটিও লজ্জায় পড়বে বলে মন্তব্য করেছে শিবসেনা।

 

সম্প্রতি জম্মু-কাশ্মিরের হুররিয়াত নেতাদের সম্পর্কে পুরোনো মনোভাব পরিবর্তন করেছে নয়া দিল্লি। হুররিয়াত নেতারা পাকিস্তানের নেতাদের সঙ্গে কথাবার্তা বললে আপত্তি করবে না কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকার। সংসদে এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে সাবেক সেনা প্রধান এবং পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ভি কে সিং বলেন, ‘জম্মু-কাশ্মির ভারতের একটি অবিচ্ছিন্ন অঙ্গ এবং কাশ্মিরি নেতারাও ভারতীয় নাগরিক। এজন্য তারা যেকোনো দেশের প্রতিনিধিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে এবং কথা বলতে পারেন।’ কেন্দ্রীয় সরকারের এ ধরণের পরিবর্তিত মনোভাবের সমালোচনা করেছে তাদের জোট শরিক শিবসেনা।#

 

এমএএইচ/এআর/৪

 

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন