এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
বৃহস্পতিবার, 05 মে 2016 14:26

পশ্চিমবঙ্গে বিক্ষিপ্ত সহিংসতার মধ্যে শেষ দফার নির্বাচন অনুষ্ঠিত

পশ্চিমবঙ্গে বিক্ষিপ্ত সহিংসতার মধ্যে শেষ দফার নির্বাচন অনুষ্ঠিত

বিক্ষিপ্ত সহিংসতার মধ্যদিয়ে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভার শেষ দফার নির্বাচন চলছে। আজ (বৃহস্পতিবার) পূর্বমেদিনীপুর এবং কুচবিহার জেলায় মোট ২৫ টি কেন্দ্রে নির্বাচন ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে।

 

নির্বাচন অবাধ এবং শান্তিপূর্ণ করতে ৩৬১ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী এবং রাজ্য পুলিশের ১২ হাজার জওয়ান মোতায়েন করা হয়। আজ ৫৮ লাখের কিছু বেশি ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। এরমধ্যে প্রায় ২৮ লাখ রয়েছেন মহিলা ভোটার।

 

আজ সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত নির্বাচন কমিশনে পাঁচশ’র বেশি অভিযোগ জমা পড়েছে। অধিকাংশ অভিযোগই এসেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা থেকে। পূর্ব মেদিনীপুরের ময়নার বাগচায় সিপিএম কর্মীদের বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগে ৫ তৃণমূল কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

 

কুচবিহারের অন্তর্ভুক্ত হওয়া ছিটমহলের মানুষ এবার প্রথম ভোট দেন। স্বাধীনতার পর এই প্রথম ভোট দিলেন ছিটমহলবাসীরা। শীতলকুচির একটি বুথে ভোটারদের মারধর করার অভিযোগ উঠেছে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। মারধরের জেরে শীতলকুচিতে বাম এজেন্টের মাথা ফেটেছে। কুচবিহারের নাটাবাড়ির চিলাখানায় তৃণমূল ক্যাম্প অফিস ভাঙচুর করা হয়েছে বলে অভিযোগ। বেশ কিছু যায়গায় বিরোধী এজেন্টদের নির্বাচন কেন্দ্রে বসতে বাধা দেয়া হয়েছে বলে তৃণমূলের বিরদ্ধে অভিযোগ করেছে বিরোধীরা।

 

অন্যদিকে, মুর্শিদাবাদে ভোট হয়ে গেছে ২১ এপ্রিল। আজ মুর্শিদাবাদের বহরমপুরে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন তৃণমূলের জেলা সম্পাদক সুবীর সরকার। তার উপর কংগ্রেস আশ্রিত দুর্বৃত্তরা গুলি চালিয়েছে বলে তৃণমূল নেতা সৌমিক হোসেনের দাবি। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করে কংগ্রেস বলেছে, তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বেই এই ঘটনা ঘটেছে। আজ সকালে মোটরবাইকে চড়ে আসা দুর্বৃত্তরা সুবীর সরকারের বাড়ির কাছেই তাকে লক্ষ্য করে পরপর গুলি করে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।#

 

এমএএইচ/এআর/৫

 

 

 

 

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন