এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
শুক্রবার, 06 মে 2016 15:40

মোদি সরকারের বিরুদ্ধে মিছিল, সরকার গণতন্ত্রের গলা টিপে ধরছে : সোনিয়া

মোদি সরকারের বিরুদ্ধে মিছিল, সরকার গণতন্ত্রের গলা টিপে ধরছে : সোনিয়া

ভারতের কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে দিল্লিতে মিছিল করল দেশের প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস। আজ (শুক্রবার) দিল্লির যন্তর মন্তর থেকে ‘গণতন্ত্র বাঁচাও’ নামে প্রতিবাদ মিছিল শুরু হলে কিছুদূর যাওয়ার পর মিছিল আটকে দেয় দিল্লি পুলিশ। দিল্লির পার্লামেন্ট স্ট্রিট থানার পুলিশ আজ কংগ্রেস প্রেসিডেন্ট সোনিয়া গান্ধী, ভাইস-প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধী, সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং, গুলাম নবী আজাদ, এ কে অ্যান্টনিকে গ্রেফতার করে। যদিও কিছুক্ষণের মধ্যেই তাদের ছেড়ে দেয়া হয়।

 

আজ প্রচুর সংখ্যক কংগ্রেস কর্মীদের নিয়ন্ত্রণ করতে থানার বাইরে পুলিশ লোহার ব্যারিকেড দিয়ে পথ অবরোধ করে রাখে। বিক্ষোভকারীরা ব্যারিকেড ভেঙে সংসদ ভবন পর্যন্ত যাওয়ার চেষ্টা করে। যদিও সংসদ এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি থাকায় পুলিশ তাদের আর এগোতে দেয়নি।

 

আজ প্রতিবাদ মিছিল উপলক্ষে এক জমায়েতে কংগ্রেস নেতা সোনিয়া গান্ধী, রাহুল গান্ধী, সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং থেকে শুরু করে অন্যরা কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারের তীব্র সমালোচনা করেন।

 

কংগ্রেস প্রেসিডেন্ট সোনিয়া গান্ধী তার বক্তব্যে বলেন, ‘দেশ জুড়ে কেন্দ্রীয় মোদি সরকারের স্বরূপ উন্মোচন করার সময় এসে গেছে। আমি সমস্ত সাথীদের কাছে আবেদন করব আপনারা এগিয়ে চলুন এবং এদের মিথ্যাচারকে উন্মোচন করে দিন। আজ উত্তরাখণ্ডের জঙ্গল জ্বলতে থাকলেও সেখানে কিছু করা যাচ্ছে না। ক্ষমতার জন্য ওদের ক্ষুধা বৃদ্ধি হয়েছে। গন্তান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত সরকারকে হঠিয়ে দেয়ার চেষ্টা চলছে।’

 

সোনিয়া বলেন, ‘আজ ছাত্রদের উপরে জলুম করা হচ্ছে। নিমেষের মধ্যে কাউকে দেশদ্রোহী হিসেবে ঘোষণা করা হচ্ছে। মোদি সরকার গণতন্ত্রের গলা টিপে ধরছে। বিগত দুই বছরের মধ্যে মোদি সরকার সবকিছু বরবাদ করে রেখে দিয়েছে। সমাজের পিছিয়ে পড়া শ্রেণি, বঞ্চিতদের নির্বাচনে লড়তে বাঁধা দেয়া হচ্ছে। আজ কৃষকরা আত্মহত্যা করতে বাধ্য হচ্ছে। নিজেদের ব্যর্থতা থেকে দৃষ্টি ঘোরাতে সরকার বিরোধীদের উপরে মিথ্যা অভিযোগ করছে। সমাজকে ধর্ম এবং ভাষার নামে বিভক্ত করা হচ্ছে। এ সব অন্যায়ের বিরুদ্ধে কংগ্রেস কখনো মাথা নত করবে না।’

 

কেন্দ্রীয় সরকারের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘মিথ্যা স্বপ্ন দেখিয়ে মোদি ক্ষমতা লাভ করেছে। গণতন্ত্রকে ধংস করার চেষ্টা হচ্ছে। মোদি সরকার সমস্ত ইস্যুতে চোখ বন্ধ করে রয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার নাগপুরে (আরএসএস সদর দফতর) বসে থাকা লোকেদের ইঙ্গিতে চলছে।

 

সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং তার বক্তব্যে বলেন, ‘আমারা মোদি সরকারের পরিকল্পনাকে ব্যর্থ করে দেব। কংগ্রেস শাসিত সরকারকে হঠিয়ে দিয়ে মোদিজি গণতন্ত্রের আত্মার উপরে হামলা চালিয়েছেন। কংগ্রেস প্রবাহিত গঙ্গার মতো যা কখনো বন্ধ হবে না।’

 

কংগ্রেসের ভাইস-প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধীও কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারের তীব্র সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, ‘দেশে আজ স্রেফ দুইজন লোকের কথা চলছে, এরা হলেন নরেন্দ্র মোদি এবং মোহন ভাগবত(আরএসএস নেতা)। মোদিজি বলেছিলেন, প্রত্যেক বছর ২ কোটি লোকের কর্মসংস্থান দেব। কিন্তু গত বছর মাত্র ১.৩ লাখ মানুষ কাজ পেয়েছেন।’ দেশে আজ খরা পরিস্থিতি চলছে। প্রত্যেকদিন ৫০ জন করে কৃষক আত্মহত্যা করলেও প্রধানমন্ত্রী মোদি কিছুই করছেন না বলে অভিযোগ করেন রাহুল গান্ধী।#

 

এমএএইচ/জিএআর/৬

 

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন