এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
শনিবার, 28 নভেম্বর 2015 16:38

পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে ইউকিয়া আমানোর বক্তব্য: ইরানের প্রতিক্রিয়া

পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে ইউকিয়া আমানোর বক্তব্য: ইরানের প্রতিক্রিয়া

২৮ নভেম্বর (রেডিও তেহরান): আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থার প্রধান ইউকিয়া আমানো দাবি করেছেন, পরমাণু কর্মসূচির ব্যাপারে ইরান কিছু বিষয়ে এখনো জবাব দেয়নি। ইউকিয়া আমানো ভিয়েনায় বলেছেন, ইরানের পরমাণু কর্মসূচি সম্পর্কে তার প্রতিবেদন ইতিবাচক কিংবা নেতিবাচক হবে না। তিনি বলেন, ইরান পরমাণু সমঝোতা বাস্তবায়নে আন্তরিক কিনা সে বিষয়ে নির্বাহী বোর্ডের বৈঠকে ঘোষণা করা হবে। তার এ বক্তব্য নিয়ে বিভিন্ন মহলে প্রতিক্রিয়া হয়েছে।

 

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের আন্তর্জাতিক নিরাপত্তা বিষয়ক মহাসচিব হামিদ বাইদি নেজাদ বলেছেন, তার দেশের পরমাণু নিয়ে অনর্থক বিতর্কের অবসান ঘটবে বলে আমরা আশা করি। তিনি ভিয়েনায় ইরানের পরমাণু কর্মসূচির ব্যাপারে আইএইএ’র মহাসচিবের বিবৃতির ব্যাপারে বলেছেন, এটা স্পষ্ট আমানোর প্রতিবেদনে নেতিবাচক কিছু থাকবে না। কারণ ইরান আইএইএকে পুরোপুরি সহযোগিতা দিয়েছে যাচ্ছে এবং সব কিছুই চূড়ান্ত সমাধানের দিকে এগিয়ে গেছে।


হামিদ বাইদি নেজাদ মনে করেন, আমানোর প্রতিবেদন পুরোপুরি ইতিবাচকও হবে না। কারণ ইরানের পরমাণু কর্মসূচির লক্ষ্য নিয়ে এখনো ধুম্রজাল সৃষ্টি করা হচ্ছে। ২০১১ সালে এ নিয়ে প্রথম সন্দেহ তৈরি করা হয় এবং ২০১১ সালের প্রতিবেদনে আমানো তার সন্দেহের কথা উল্লেখ করেন। তাই স্বাভাবিকভাবেই ‘ইরানের পরমাণু কর্মসূচির ব্যাপারে সব প্রশ্নের উত্তর পাওয়া গেছে’-এমন বক্তব্য আইএইএ’র পক্ষ থেকে আসবে এমনটি আশা করা যায় না।


মার্কিন ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল সাময়িকী আমানোর এ মন্তব্যের ব্যাপারে লিখেছে, ধারণা করা হচ্ছে, ইরান পরমাণু অস্ত্র তৈরির চেষ্টা করছে কিনা সে বিষয়ে চূড়ান্ত কোনো ফয়সালায় পৌঁছানো না গেলেও তা ইরানের সঙ্গে পরমাণু সমঝোতা বাস্তবায়নে বাধা হয়ে দাঁড়াবে না। ইউকিয়া আমানো আগামী ১ ডিসেম্বর আইএইএ’র নির্বাহী বোর্ডে ইরান বিষয়ে প্রতিবেদন তুলে ধরবেন এবং এর পর এ বিষয়টি নিয়ে পর্যালোচনার জন্য এ সংস্থার সদস্য দেশগুলোর সামনে দুই সপ্তাহ সময় রয়েছে। আইএইএ জানিয়েছে, ইরান তার অতীত পরমাণু তৎপরতা নিয়ে একটি লিখিত বর্ণনা এ সংস্থার বিশেষজ্ঞদের বৈঠকে তুলে ধরেছে এবং কিছু সামরিক স্থাপনা পরিদর্শনের যে প্রতিশ্রুতি ইরান দিয়েছিল তা পালন করেছে। মার্কিন কর্মকর্তারাও বলেছেন, আইএইএ’র তদন্ত কাজে ইরান যতদিন সহযোগিতা করবে ততদিন পরমাণু সমঝোতা বাস্তবায়ন প্রক্রিয়া স্থগিত রাখার কোনো কারণ নেই।


বিশ্লেষকরা বলছেন, আইএইএ’র প্রধানের অতীত দৃষ্টিভঙ্গির আলোকে বলা যায় ইরানের ব্যাপারে এবারের প্রতিবেদনেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না। আইএইএ একটি আন্তর্জাতিক সংস্থা এবং ইরানের ব্যাপারে এ সংস্থার নির্বাহী বোর্ডের কর্মকর্তাদের নির্দেশ মতোই দায়িত্ব পালন করছে এ সংস্থা। পরমাণু সমঝোতা অনুযায়ী কোনো বাধা ছাড়াই তারা ইরানে নিজ দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে। অতীতে ইরানের ব্যাপারে দাবি তদন্ত করতে গিয়ে তারা দীর্ঘ সময় নিয়েছে। বর্তমানেও তারা ইরানের পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করলেও এর কোনো ভিত্তি নেই। যাইহোক, আইএইএ তার দায়িত্ব পালন করতে বাধ্য এবং এ সংস্থার নির্বাহী বোর্ডই বিতর্ক অবসানের জন্য চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে। #


রেডিও তেহরান/আরএইচ/২৮

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন