এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
বৃহস্পতিবার, 16 অক্টোবার 2014 16:43

ফিলিস্তিনিদের প্রতিরক্ষা ক্ষমতা বাড়ানো উচিত: সর্বোচ্চ নেতা

১৬ অক্টোবর (রেডিও তেহরান): ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেছেন, ইহুদিবাদী ইসরাইলের সম্ভাব্য নতুন আগ্রাসন মোকাবেলার জন্য ফিলিস্তিনি প্রতিরোধকামী সংগঠনগুলোকে নিজেদের প্রতিরক্ষা ক্ষমতা বাড়ানো দরকার।

 

রাজধানী তেহরানে ফিলিস্তিনের ইসলামি জিহাদ আন্দোলনের মহাসচিব রামাদান আব্দুল্লাহকে দেয়া সাক্ষাতে সর্বোচ্চ নেতা এ কথা বলেছেন। তিনি বলেন, দিন দিন প্রতিরোধ সংগঠনগুলোর প্রস্তুতি বাড়ানো উচিৎ এবং গাজার অভ্যন্তরীণ শক্তির উৎসগুলোকে জোরদার করা দরকার।

 

গাজায় সাম্প্রতিক ইসরাইলি বর্বর আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনের বিজয়কে ইরানের সর্বোচ্চ নেতা ঐশী প্রতিশ্রুতির ইঙ্গিত বলে উল্লেখ করেন। তিনি আরো বলেন, সাম্প্রতিক যুদ্ধে ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলনগুলোর ভূমিকা বড় বিজয়ের পথ দেখাবে। একইসঙ্গে তিনি ফিলিস্তিনের প্রতিশ্রুতিশীল, উজ্জ্বল ও সুন্দর ভবিষ্যতের বিষয়ে জোরালো আশা প্রকাশ করেন।

 

ইহুদিবাদী ইসরাইলের বিরুদ্ধে পশ্চিমতীরের জনগণকেও লড়াইয়ের আহ্বান জানিয়ে সর্বোচ্চ নেতা বলেন, শত্রুরা গাজায় যে পরাজয় বরণ করেছে সেখানেও একই ধরনের পরাজয় মানতে বাধ্য হবে। এ সময় তিনি ফিলিস্তিনি জনগণের প্রতি ইরানের সমর্থন বাড়বে বলে অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।

 

আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী বলেন, “ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ আন্দোলনগুলোর বিজয়ে ইরানের জনগণ গর্ববোধ করে এবং আশা করে তারা সবাই চূড়ান্ত বিজয় পর্যন্ত কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াই করবে।”

 

সাক্ষাৎ অনুষ্ঠানে ফিলিস্তিনের জিহাদ আন্দোলন এবং অন্য প্রতিরোধকামী সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ নেতাকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান রামাদান আবদুল্লাহ। এছাড়া, ইসরাইলের বিরুদ্ধে সাম্প্রতিক যুদ্ধের বিষয়ে একটি রিপোর্ট তুলে ধরেন তিনি। এ সময় রামাদান বলেন, সাম্প্রতিক বিজয় অর্জনের ক্ষেত্রে ইরানের সহযোগিতা নিশ্চিতভাবে ইতিবাচক ভূমিকা রেখেছে। ইরানের কৌশলগত ও অভিজ্ঞতালব্ধ সহযোগিতা ছাড়া বিজয় অর্জন সম্ভব হতো না বলেও তিনি উল্লেখ করেন।#

 

রেডিও তেহরান/এসআই/১৬ 

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন