এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
রবিবার, 09 নভেম্বর 2014 15:56

ফিলিস্তিনি কিশোর হত্যার প্রতিবাদে ধর্মঘটের ডাক ইসরাইলি আরব নেতাদের

রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে ও পাথর ছুঁড়ে প্রতিবাদ জানান ফিলিস্তিনিরা রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে ও পাথর ছুঁড়ে প্রতিবাদ জানান ফিলিস্তিনিরা

৯ নভেম্বর (রেডিও তেহরান): ইহুদিবাদী ইসরাইলি বাহিনীর গুলিতে এক ফিলিস্তিনি কিশোরের হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে সংখ্যালঘু আরব নেতারা ২৪ ঘন্টার ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন।

 

অধিকৃত পশ্চিম তীরের গ্যালিলি অঞ্চলের  কাফর কাননা গ্রামে  ইহুদিবাদী সেনারা শনিবার খায়েরুদ্দিন হামাদান নামে ২২ বছর বয়সী এক ফিলিস্তিনি কিশোরকে হত্যা করে। এর প্রতিবাদে আজ (রোববার) ইসরাইলি আরব নেতারা ২৪ ঘন্টার ধর্মঘটের ডাক দেন।

 

এছাড়া, আজ (রোবাবার)  হাজার হাজার ফিলিস্তিনি রাস্তায় নেমে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখান। তারা ইসরাইলি বাহিনীর দিকে পাথর ছুঁড়ে মারেন ও কাফর কাননার প্রবেশ পথে আগুন জ্বালিয়ে হত্যার প্রতিবাদ জানায়। বিক্ষোভকারীরা ইসরাইল বিরোধী শ্লোগান দেন এবং  হামাদানের ছবি ও ফিলিস্তিনি পতাকা বহন করেন।

 

ইসরাইল বাহিনী দাবী করেছে, তারা গ্রেফতার অভিযান চালানোর সময় ওই কিশোর নিহত হয়। তাদের দাবি, প্রথমে কিশোরকে সতর্ক করে দেয়ার জন্য তারা ফাঁকা গুলি ছোঁড়ে এবং এক পর্যায়ে তারা গুলি চালাতে বাধ্য হয় পুলিশ। কিন্তু, ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, এক ইসরাইলি পুলিশ গাড়ি থেকে নেমেই  পলায়নরত ওই কিশোরকে সরাসরি গুলি করে। পরে তিনি হাসপাতালে শহীদ হন।

 

নিহত কিশোরের বাবা রউফ হামাদান বলেন, আমার ছেলে আরব বলে ইসরাইলি পুলিশ তাকে ঠাণ্ডা মাথায় খুন করে। এ ঘটনা কাফর কাননা গ্রামসহ গোটা আরব বিশ্বকে আহত করেছে। তিনি আরো বলেন, এটা ইসরাইলি পুলিশ বাহিনীর বর্ণবাদী আচরণ।

 

এদিকে ইসরাইলি পার্লামেন্ট- নেসেটের আরব সদস্য আহমেদ তিবি বলেন, তেল আবিবের বাহিনী ফিলিস্তিনিদেরকে তাদের শত্রু হিসেবে গণ্য করে। পুলিশের এরই ধরণের বর্বরোচিত আচরণ ইহুদিদের ক্ষেত্রে দেখা যায় না।#

 

রেডিও তেহরান/এমবিএ/এমআই/৯

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন