এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
শনিবার, 19 মার্চ 2016 23:36

বিরাট কোহলির দৃঢ়তায় পাকিস্তানকে হারিয়ে টুর্নামেন্টে ফিরল ভারত

ম্যাচ সেরার পুরস্কার হাতে বিরাট কোহলি ম্যাচ সেরার পুরস্কার হাতে বিরাট কোহলি

১৯ মার্চ (রেডিও তেহরান): টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুপার টেনের ম্যাচে পাকিস্তানকে ৬ উইকেটে হারিয়ে টুর্নামেন্টে ফিরল ভারত। নিউজিল্যান্ডের কাছে বিশ্ব আসরের প্রথম ম্যাচে হারলেও বিরাট কোহলির দারুণ ব্যাটিংয়ে ভর করে ১৩ বল হাতে রেখেই নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে জিতল মহেন্দ্র সিং ধোনির দল।

 

কোলকাতার ইডেন গার্ডেন্স স্টেডিয়ামে বৃষ্টির কারণে ম্যাচের দৈর্ঘ্য কমিয়ে আনা হয়েছিল ১৮ ওভারে। টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ভারতকে ১১৯ রানের চ্যালেঞ্জ দিয়েছিল পাকিস্তান। ভারতের দুর্দান্ত ব্যাটিং লাইন আপের জন্য লক্ষ্যটা সহজই বলা চলে। কিন্তু বল হাতে পাকিস্তানের শুরুটা হয়েছিল দারুণভাবে। মোহাম্মদ আমির ও মোহাম্মদ সামির দারুণ বোলিংয়ে প্রথম পাঁচ ওভারের মধ্যে ২৩ রান জমা করতেই ভারত হারিয়েছিল রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান ও সুরেশ রায়নার উইকেট। কিন্তু এরপর বরাবরের মতো শক্ত হাতে দলের হাল ধরেছেন কোহলি। চতুর্থ উইকেটে যুবরাজ সিংয়ের সঙ্গে ৬১ রানের জুটি গড়ে দলের জয় প্রায় নিশ্চিতই করে ফেলেন ভারতের এই তারকা ব্যাটসম্যান। দ্বাদশ ওভারের শেষ বলে ২৪ রান করা যুবরাজকে আউট করে পাকিস্তান শিবিরে ক্ষণিকের জন্য আশার আলো জাগিয়েছিলেন ওয়াহাব রিয়াজ। কিন্তু দারুণ ব্যাটিং করে দলকে জয়ের বন্দরে নিয়ে যান কোহলি। ৩৭ বলে ৫৫ রানের দারুণ ইনিংস খেলে শেষপর্যন্ত অপরাজিত ছিলেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। যুবরাজের পর ব্যাট করতে নামা ধোনি ৯ বলে একটি ছক্কায় ১৩ রান করে অপরাজিত থাকেন।

 

এর আগে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের শুরুটা ধীরগতিতে করেছিলেন পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানরা। উদ্বোধনী জুটিতে ৪৬ বল খেলে ৩৮ রান যোগ করেছিলেন দুই ওপেনার সারজিল খান ও আহমেদ শেহজাদ। অষ্টম ওভারে ২৪ বলে ১৭ রান করে সুরেশ রায়নার শিকারে পরিণত হয়েছেন সারজিল। দশম ওভারে শেহজাদের (২৫) উইকেট তুলে নিয়েছেন জাসপ্রিত বুমরা। তিন নম্বরে ব্যাট করতে নেমে অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদিও জ্বলে উঠতে পারেননি। দ্বাদশ ওভারে ফিরে যাওয়ার আগে করেছিলেন ১৪ বলে ৮ রান। সেসময় পাকিস্তানের সংগ্রহ ছিল মাত্র ৬০ রান। তবে এরপর রানের চাকা দ্রুত ঘুরিয়েছেন আকমল ও শোয়েব মালিক। চতুর্থ উইকেটে তারা গড়েছিলেন ২৪ বলে ৪১ রানের ঝড়ো জুটি। ১৬তম ওভারে আকমল আউট হয়েছেন ২২ রান করে। তার পরের ওভারে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ২৬ রানের ইনিংস খেলে সাজঘরে ফিরেছেন মালিক। একটি ছক্কা ও তিনটি চারে গড়া মালিকের ১৬ বলে ২৬ রানের ইনিংসটাই শেষ পর্যন্ত পাকিস্তানের সর্বোচ্চ। শেষ দুই ওভারে পাকিস্তান সংগ্রহ করতে পেরেছে ১৫ রান।

 

৩৭ বলে ৭টি চার আর একটি ছক্কায় ৫৫ রান করা বিরাট কোহলি ম্যান অব দ্য ম্যাচ পুরস্কার পান।#

 

রেডিও তেহরান/আশরাফুর রহমান/১৯

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন