এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
বুধবার, 27 এপ্রিল 2016 00:41

হায়দ্রাবাদের বিপক্ষে পুনের সহজ জয়, প্রথম ম্যাচেই বাজিমাত দিন্দার

ম্যাচ সেরার পুরস্কার পান অশোক দিন্দা ম্যাচ সেরার পুরস্কার পান অশোক দিন্দা

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ২২তম ম্যাচে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে সহজেই হারিয়েছে রাইজিং পুনে সুপার জায়ান্টস। বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে ডাক ওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে ৩৪ রানের জয় পায় মহেন্দ্র সিং ধোনির দল।

 

টানা চার ম্যাচে হার নিয়ে মঙ্গলবার রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয়েছিল হায়দ্রাবাদের মুখোমুখি হয়েছিল পুনে। নির্ধারিত সময়ের দেড়ঘণ্টা পর শুরু হওয়ার ম্যাচে টসে জিতে প্রথমে বল করার সিদ্ধান্ত নেন পুনের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। পশ্চিমবঙ্গের পেসার অশোক দিন্দা এবং অস্ট্রেলিয়ার অল-রাউন্ডার মিচেল মার্শের বোলিং দাপটে নির্ধারিত ২০ ওভারের খেলা শেষে ৮ উইকেটে মাত্র ১১৮ রান সংগ্রহ করে হায়দ্রাবাদ।

 

১১৯ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৯ ওভার হাতে রেখেই বৃষ্টি আইনে ৭ উইকেটের জয় তুলে নেয় ধোনির পুনে। তবে ছোট লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুটা একদমই ভালো হয়নি পুনের। প্রথম ওভারেই শূন্য রানে বিদায় নেয় রাহানে। এরপর ডু প্লেসিস এবং স্মিথের দৃঢ় ব্যাটিংয়ে প্রাথমিক বিপর্যয় কাটিয়ে উঠে পুনে। তারা মাত্র ৪৯ বলে ৮০ রানের পার্টনারশিপ গড়ে জয় প্রায় নিশ্চিত করেন। ডু প্লেসিস ২১ বলে ৩০ রান করে হেনরিক্সের বলে আউট হলে মাঠে নামে অধিনায়ক ধোনি। তিনি মাত্র ৫ রান করে আশিস নেহেরার বলে বিদায় নেন। অপরপ্রান্তে স্মিথ ৩৬ বলে ৪৭ রান করে অপরাজিত থাকেন। এই পর্যায় বৃষ্টি হানা দিলে খেলা বন্ধ হয়ে যায়।

 

পরবর্তীতে খেলা আর শুরু করা সম্ভব না হওয়ায় পুনে সুপার জায়ান্টসকে বৃষ্টি আইনে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। হায়দ্রাবাদের পক্ষে ভুবেনশ্বর কুমার, আশিস নেহরা এবং হেনরিক্স প্রত্যেকে একটি করে উইকেট লাভ করেন। এই ম্যাচে বল হাতে জ্বলে উঠতে পারেননি বাংলাদেশের পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। তিনি মাত্র ২ ওভার বল করে রান দিয়েছেন ২১।

 

এর আগে হায়দ্রাবাদের ব্যাটিংয়ের শুরুতেই অধিনায়ক ডেভিড ওয়ার্নার কোনো রান না করেই বিদায় নেন। আইপিএলে দলে প্রথমবার সুযোগ পাওয়া অশোক দিন্দা তাকে খালি হাতে ফিরিয়ে দেন। অপর ওপেনার শিখর ধাওয়ান শুরুর ধাক্কা সামাল দেয়ার চেষ্টা করলেও অন্য কোনো ব্যাটসম্যান তাকে সঙ্গ দিতে পারেননি। দলীয় ২৬ রানে আদিত্য তারেও মাত্র আট রানে আউট হন নিন্দার বলে।

 

এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকলে এক সময় বেশ চাপে পড়ে যায় হায়দ্রাবাদ। মাত্র ৩২ রানেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসে তারা। তবে এরপর ওঝাকে সাথে নিয়ে ৪৭ রানের একটি পার্টনারশিপ গড়ে তোলেন ধাওয়ান। ওঝা ১৮ রান করে বিদায় নিলেও ৪৮ বলে নিজের অর্ধশতক তুলে নেন ধাওয়ান। শেষের দিকে ভুবেনশ্বর কুমারের ৮ বলে ২২ রানের ঝড়ো ইনিংসের সুবাদে ১১৮ রান করে হায়দ্রাবাদ সানরাইজার্স। শেষ পর্যন্ত ধাওয়ান ৫৩ বলে ৫৬ রান করে অপরাজিত ছিলেন।

 

পুনের হয়ে দিন্দা তিনটি ও মার্শ দুইটি উইকেট লাভ করেছেন। এছাড়া, পেরেরা এবং অশ্বিন একটি করে উইকেট নিয়েছেন। একটি মেডেনসহ চার ওভারে ২৩ রান দিয়ে তিন উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরার পুরস্কার পান অশোক দিন্দা।#

 

আশরাফুর রহমান/২৬

 

 

 

 

 

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন