এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
বুধবার, 04 মে 2016 01:43

গুজরাটকে ৮ উইকেটে হারিয়ে ‘প্রতিশোধ’ নিল দিল্লি ডেয়ারডেভিলস

গুজরাটকে ৮ উইকেটে হারিয়ে ‘প্রতিশোধ’ নিল দিল্লি ডেয়ারডেভিলস

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লীগের (আইপিএল) ৩১তম ম্যাচে স্বাগতিক গুজরাট লায়ন্সের বিপক্ষে ৮ উইকেটের সহজ জয় পেয়েছে দিল্লি ডেয়ারডেভিলস। গত বুধবার আইপিএলের ২৩তম ম্যাচে এই গুজরাটের কাছেই মাত্র এক রানে হেরেছিল জহির খানের দল।

 

রাজকোটের স্বরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে টসে হেরে আগে ব্যাট করে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৪৯ রান সংগ্রহ করে গুজরাট। জবাবে, মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে ১৬ বল হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় দিল্লি।

 

গুজরাটের দেয়া ১৫০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে কুইন্টন ডি কক ও রিশবাহ পান্টের ওপেনিং জুটিতে ১১৫ রানের বড় সংগ্রহের ওপর ভর করে জয়ের কাছাকাছি পৌঁছে যায় দিল্লি। দিল্লির বাঁহাতি স্পিনার শিভিল কৌশিকের বলে ডোয়াইন স্মিথের হাতে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেন ৪৫ বলে ৪৬ রান করা ডি কক। আরেক ওপেনার রিশবাহ পান্ট মাত্র ৪০ বলে ৯টি চার ও ২টি ছয়ের সাহায্যে ৬৯ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে ভারতের বাঁহাতি স্পিনার রবিন্দ্র জাদেজার ঘূর্ণিতে ধরাশায়ী হন। এরপর সঞ্জু স্যামসন ১৯ আর জেপি ডুমিনি ১৩ রান করে সহজেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে দেন দিল্লিকে।

 

এর আগে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে দিনেশ কার্তিক ও রবিন্দ্র জাদেজার ব্যাটে ভর করে গুজরাট লায়ন্স ১৪৯ রান সংগ্রহ করে। ভারতীয় উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান দিনেশ কার্তিক দলের হয়ে সবচেয়ে বেশী রান সংগ্রহ করেছেন। ৪৩ বলে ৫টি চারের সাহায্যে ৫৩ রান করে মোহাম্মাদ শামীর বলে বোল্ড আউট হয়ে মাঠ ছাড়েন তিনি। এছাড়া রবিন্দ্র জাদেজা ২৬ বল খেলে ৪টি চার ও ১টি ছয় মেরে ৩৬ রান করে অপরাজিত থাকেন।

 

দিল্লির হয়ে সবচেয়ে বেশী দুইটি উইকেট শিকার করেছেন ডানহাতি স্পিনার শাহবাজ নাদিম। এছাড়া দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিস মরিস, ভারতের মোহাম্মাদ শামি, অমিত মিশরা ও দলের অধিনায়ক জহির খান একটি করে উইকেট নিয়েছেন।

 

৬৯ রানের দুর্দান্ত ইনিংসের জন্য রিশবাহ পান্ট প্লেয়ার অব দ্য ম্যাচ নির্বাচিত হয়েছেন।

 

ম্যাচ পরবর্তী প্রশ্নোত্তর পর্বে গুজরাটের অধিনায়ক সুরেশ রায়না তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, “এরকম পরাজয় আসলেই হতাশাজনক, আমরা প্রথম ছয় ওভারে একদমই রান তুলতে পারিনি। এরকম পিচে এত কম রান হলে আপনি জয়ের আশা করতে পারেন না, তবুও আমরা চেষ্টা করেছিলাম। আমি মনে করি রানের খাতায় পিছিয়ে পড়ায় ম্যাচটি আমাদের হাত ছাড়া হয়েছে।”

 

অন্যদিকে, ম্যাচের পর ম্যাচ ভালো ফলাফল প্রসঙ্গে দিল্লির অধিনায়ক জহির খান জানান, “আমরা প্রতি ম্যাচে পরিকল্পনা অনুযায়ী এগিয়ে যাচ্ছি, যা দলের জন্যই ভালো। জয়ের পেছনে এটিই সবচেয়ে বড় একটি কারণ, প্রথম দিকে আমাদের পরিকল্পনায় ত্রুটি ছিল, যা আমরা কাটিয়ে উঠেছি। ডি কক এবং পান্ট চমৎকার ব্যাটিং করেছে; সামনে আমাদের ‘ব্যাক টু ব্যাক’ ম্যাচ রয়েছে, আশা করি দল হিসেবে আমরা আরও ভালো খেলব।”

 

চলমান আইপিএএল গুজরাট ৯ ম্যাচ খেলে ৬ জয়ে সর্বোচ্চ ১২ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে রয়েছে। ৭ ম্যাচ খেলা দিল্লি ৫ জয় আর দুই পরাজয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দুইয়ে। ৮ ম্যাচ খেলা কোলকাতা নাইট রাইডার্স ৫ জয় ও তিন পরাজয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে তালিকায় রয়েছে তিন নম্বরে। আর ৯ ম্যাচ খেলে ১০ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের চারে রয়েছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।#

 

আশরাফুর রহমান/৪

 

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন