এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
শুক্রবার, 06 মে 2016 10:12

দিল্লিকে হারিয়ে স্বস্তির জয় তুলে নিল ধোনির পুনে, ম্যাচসেরা রাহানে

ম্যাচসেরার পুরস্কার পেয়েছেন আজিঙ্কা রাহানে ম্যাচসেরার পুরস্কার পেয়েছেন আজিঙ্কা রাহানে

আজিঙ্কা রাহানের ব্যাটে দিল্লি ডেয়ার ডেভিলসকে ৩ উইকেটে হারিয়ে তৃতীয় জয় তুলে নিয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনির রাইজিং পুনে সুপারজায়ান্টস।

 

বৃহস্পতিবার দিল্লির ফিরোজশাহ কোটলায় টস হেরে ব্যাটিংয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৬২ রানের সংগ্রহ পায় দিল্লি। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৫ বল হাতে রেখেই রাহানের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় পুনে।

 

লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুটা দুর্দান্ত করেছিলেন পুনের দুই ওপেনার আজিঙ্কা রাহানে ও উসমান খাজা। নবম ওভারে অমিত মিশরার গুগলিতে ব্যক্তিগত ৩০ রানে স্ট্যামপড হয়ে ফিরে যান উসমান খাজা। এরপর দ্বিতীয় উইকেটে রাহানের সঙ্গে দলের হয়ে হাল ধরেন সৌরভ তিওয়ারি। তাদের দুজনের ব্যাটে ভর করে বেশ ভালোই জবাব দিচ্ছিল পুনে। কিন্তু ১৪ তম ওভারে ইমরান তাহিরের দ্বিতীয় বলটি সৌরভ সুইপ করতে গিয়ে সোজা ডিপ মিড উইকেটে বিলিংসের হাতে ক্যাচ তুলে দিলে ব্যক্তিগত ২১ রানেই নিজের ইনিংসের ফুলস্টপ টানতে হয়।

 

এরপর তৃতীয় উইকেটে রাহানের সঙ্গে ৪২ রানের এক ঝড়ো ইনিংস খেলে দলকে ১৪৬ রানের সংগ্রহ এনে দিয়ে ব্যক্তিগত ২৭ রানে ইমরান তাহিরের দ্বিতীয় শিকার হয়ে প্যাভিলনে ফিরে যান পুনে অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি।

 

ধোনির ফিরে যাবার পর রাহানের সঙ্গী হিসেবে আসেন লঙ্কান ব্যাটসম্যান থিসারা পেরেরা। আর তাকে নিয়েই ১৬২ রান টপকে তিন উইকেটের খরচায় ১৬৬ রান সংগ্রহ করে দলকে তৃতীয় জয় এনে দিয়ে মাঠ ছাড়েন এই দুই ব্যাটসম্যান।

 

৪৮ বলে ৭টি বাউন্ডারির মারে রাহানে খেলেছেন অপরাজিত ৬৩ রানের দারুণ এক কার্যকরী ইনিংস। থিসারা পেরেরা অপরাজিত ছিলেন ব্যক্তিগত ১৪ রানে।

 

দিল্লির হয়ে বল হাতে ইমরান তাহির ২টি ও অমিত মিশরা নিয়েছেন ১টি উইকেট।

 

এর আগে ব্যাটিংয়ে নেমে দিল্লির পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৪ রান করেন জেপি ডুমিনি। এছাড়া, করুন নায়ার ৩২, স্যাম বিলিংস ২৪ ও সঞ্জু স্যামসন ২০ রান করেন।

 

পুনের হয়ে ২টি করে উইকেট নিয়েছেন স্কট বোল্যান্ড ও রজত ভাটিয়া। আর ১টি উইকেট নিয়েছেন অশোক ডিন্ডা। বাকি দু’জন সাজঘরে ফেরেন রানআউট হয়ে।

 

৭টি চারের সাহায্যে ৪৮ বলে অপরাজিত ৬৩ রান করে পুনের জয়ে অবদান রাখায় ম্যাচসেরার পুরস্কার পেয়েছেন আজিঙ্কা রাহানে।

 

আট ম্যাচের ছয়টিতে হারার পর বহু প্রতীক্ষিত জয়কে ‘স্বস্তির জয়’ হিসেবেই উল্লেখ করেছেন পুনে দলপতি মহেন্দ্র সিং ধোনি। ম্যাচ শেষে তিনি জানালেন, এই জয়টি দলের জন্য কত গুরুত্বপূর্ণ ছিল। এই ম্যাচের নানা দিক নিয়েও তিনি প্রশ্নোত্তর পর্বে কথা বলেন।

 

তিনি বলেন, “আমাদের বোলাররা পরিকল্পনা অনুযায়ী বল করেছে, তাদেরকে ১৬০ রানের মধ্যে আটকে ফেলাটা আমাদের সফলতা ছিল, আর আমরা আমাদের বোলিং নিয়েই অনেক চিন্তিত ছিলাম তাই আমি এটি নিয়ে এখন বেশ নির্ভার আছি। আমাদের ব্যাটিংটাও ভালো ছিল, দলে দুইজন ভালো ব্যাটসম্যান যুক্ত হয়েছে। যদিও মাঝের ওভারগুলোতে আমরা একটু বিচলিত হয়ে পড়েছিলাম।"

 

ধোনি বলেন, “মাঝের ওভারে মিস্রা এবং তাহির দুজনই বেশ ভালো বল করছিল, কিন্তু আমরা জানতাম আমাদেরও সুযোগ আসবে; যখন আপনি পাঁচটি ম্যাচে পরাজয় বরন করেন, তখন একটি জয়ের জন্য আপনার সামনে যা আসবে তাই লুফে নিতে হবে। খেলাটি বেশ চমৎকার ছিল।”

 

দিল্লিকে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলে ষষ্ঠ স্থানে উঠে এলো ধোনির দল। নয় ম্যাচ শেষে তাদের ঝুলিতে ছয় পয়েন্ট। একটি ম্যাচ কম খেলে ১০ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে রয়েছে দিল্লি। শীর্ষে যথারীতি কোলকাতা নাইট রাইডার্স (১২ পয়েন্ট)। সমান পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে গুজরাট লায়ন্স। #

 

আশরাফুর রহমান/৬

 

 

 

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন