এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
শুক্রবার, 08 আগস্ট 2014 00:04

ইউরোপের খাদ্যপণ্য রফতানিতে ধস নামাবে রাশিয়ার নিষেধাজ্ঞা

খাদ্য এবং কৃষিপণ্য আমদানির ওপর রাশিয়া যে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে তাতে ইউরোপের খাদ্যপণ্য উৎপাদনকারীদের রফতানিতে ধস নামবে। ইউরোপের খাদ্যপণ্য রফতানি এক ধাক্কায় অন্তত ১০ শতাংশ হ্রাস পাবে। একই সঙ্গে বাড়তি খাদ্য ও কৃষিপণ্যের মজুদ নিয়ে ভয়াবহ বিপদে পড়বে ইউরোপ। এ নিষেধাজ্ঞা আরোপের ২৪ ঘণ্টারও কম সময়ের মধ্যে খাদ্য ও কৃষি শিল্পের সঙ্গে জড়িত বিশ্লেষকরা এ আশংকা ব্যক্ত করেছেন।

গত ২৯ জুলাই রাশিয়ার ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা চাপিয়ে দেয় আমেরিকা ও ইউরোপ। এর পাল্টা ব্যবস্থা হিসেবে প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের নির্দেশে  আমেরিকা ও ইউরোপের বিরুদ্ধে বৃহস্পতিবার পাল্টা নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে মস্কো। এ নিষেধাজ্ঞা অনুযায়ী, ইউরোপ ও আমেরিকার বিভিন্ন দেশ থেকে রাশিয়ায় এক বছরের জন্য খাদ্য ও কৃষিপণ্য  আমদানি করা যাবে না।

এ নিষেধাজ্ঞা ইউরোপের অনেক রফতানিকারকের ওপর উল্লেখযোগ্য প্রভাব ফেলবে এবং তাদেরকে এখন নতুন বাজারের সন্ধান করতে হবে। এ ছাড়া, দ্রুত বিকাশশীল দেশগুলোতে তারা প্রতিদ্বন্দ্বীদের কাছে বাজার হারাবে। সব মিলিয়ে তারা পথে বসার মতো অবস্থায় পৌঁছে গেছে।

 

এদিকে, রুশ নিষেধাজ্ঞার সম্ভাব্য প্রভাব খতিয়ে দেখার জন্য আগামী সপ্তাহে বৈঠকে বসার পরিকল্পনা করেছেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের মন্ত্রীরা। ফ্রান্সের কৃষিমন্ত্রী স্টেফেন লে ফোল এ কথা জানিয়েছেন। রাশিয়ায় নিযুক্ত ইউরোপীয় ইউনিয়নের রাষ্ট্রদূত ভাইগাউডাস উসাককাস বলেছেন, মস্কোর নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে তারা বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থায় আপিল করার কথা বিবেচনা করছেন।

রাশিয়া প্রতিবছর ১,২০০ কোটি ডলার সমপরিমাণ অর্থ ব্যয়ে নিজ চাহিদার ৩৫ শতাংশ খাদ্য এবং ১০ শতাংশ নিত্যপণ্য  ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে আমদানি করে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের সরকারি পরিসংখ্যান থেকে এ হিসাব পাওয়া গেছে। ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত ১৮টি দেশের মধ্যে রাশিয়ার সবচেয়ে বড় সরবরাহকারী দেশ হলো জার্মানি এবং নেদারল্যান্ড।

এদিকে, রাশিয়ার এ নিষেধাজ্ঞার সবচেয়ে বড় ধকল পোহাবে আমেরিকার পোলট্রি শিল্প। গত বছর এ শিল্পখাত থেকে রাশিয়া ৩১ কোটি ডলারের সমপরিমাণ পণ্য আমদানি করেছে।#
 
রেডিও তেহরান/সমর/এমআই/৮

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন