এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
মঙ্গলবার, 01 নভেম্বর 2011 12:31

দক্ষিণ কোরিয়ায় ধর্ষণের দায়ে মার্কিন সেনার ১০ বছরের কারাদণ্ড

১ নভেম্বর (রেডিও তেহরান) : দক্ষিণ কোরিয়ায় কিশোরি ধর্ষণের দায়ে অভিযুক্ত এক মার্কিন সেনাকে ১০ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। প্রায় দু'মাস আগে ২১ বছর বয়সী ওই মার্কিন সেনা জানালার কাঁচ ভেঙ্গে এক কিশোরির কক্ষে ঢুকে তার ওপর কয়েক ঘন্টা ধরে যৌন নির্যাতন চালায়। এ সময় সে একটি কাঁচি দিয়ে কিশোরিকে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে।
মার্কিন সরকার ও সেনাবাহিনী ওই ঘটনার জন্য প্রকাশ্যে সিউলের কাছে ক্ষমা চেয়েছিল।
গত ২৪ সেপ্টেম্বর খুব ভোরে অভিযুক্ত মার্কিন সেনা ১৮ বছর বয়সী ওই কিশোরির ওপর এ নির্যাতন চালায়। দক্ষিণ কোরিয়ার দোংদুচিয়ান শহরে স্থাপিত মার্কিন সেনাঘাঁটির কাছে এ ঘটনা ঘটে। বিচারক ধর্ষণের এ ঘটনাকে 'হিংস্র ও অস্বাভাবিক' হামলা বলে উল্লেখ করেছেন। এ ছাড়া, ওই মার্কিন সেনা পালানোর আগে কিশোরির কক্ষ থেকে ৫,০০০ ইয়ান চুরি করে নিয়ে যায় বলেও আদালতে প্রমাণিত হয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ায় মোতায়েন মার্কিন সেনাদের উগ্র আচরণ ও ধর্ষণের ঘটনায় দেশটিতে এর আগে ব্যাপক প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ হয়েছে।
দেশটিতে বর্তমানে কমপক্ষে ২৮,০০০ মার্কিন সেনা মোতায়েন রয়েছে। এসব সেনা কোন অপরাধ করলে তার বিচার যুক্তরাষ্ট্রে হবে বলে দু'দেশের মধ্যে স্বাক্ষরিত সামরিক চুক্তিতে বলা হয়েছে। চুক্তির এ ধারার বিরুদ্ধে দক্ষিণ কোরিয়ায় তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে। সংবাদদাতারা বলছেন, জনরোষের কথা বিবেচনা করেই মার্কিন কর্তৃপক্ষ এ পর্যন্ত মারাত্মক অপরাধের দায়ে অভিযুক্ত একাধিক মার্কিন সেনাকে দক্ষিণ কোরিয়ার বিচার বিভাগের কাছে হস্তান্তর করেছে।
দক্ষিণ কোরিয়ায় মোতায়েন কোন মার্কিন সেনাকে সবচেয়ে কঠিন শাস্তি দেয়া হয় ১৯৯০'র দশকের গোড়ার দিকে। খুনের দায়ে ওই মার্কিন সেনাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছিল, তবে ২০০৬ সালে তার দণ্ড লাঘব করে তাকে মুক্তি দেয়া হয়।#

তেহরান রেডিও/এমআই/এমএইচ/১.৬ {jcomments on}

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন