এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
সোমবার, 18 জানুয়ারী 2016 13:47

হায়দ্রাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের দলিত ছাত্রের আত্মহত্যা: মন্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা

হায়দ্রাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের দলিত ছাত্রের আত্মহত্যা: মন্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা

১৮ জানুয়ারি (রেডিও তেহরান): ভারতের হায়দ্রাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের হোস্টেল থেকে বিতাড়িত হওয়ার পর এক গবেষক দলিত ছাত্র আত্মহত্যা করায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। রোহিত ভেমুলা (২৫) নামে ওই ছাত্র রোববার রাতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। এর প্রতিবাদে রাতভর মৃত ওই ছাত্রের লাশ নিয়ে অবস্থান ধর্মঘটে বসে শ্লোগান দেয় অন্য ছাত্ররা। তারা তাদের দাবি মানার জন্য প্রশাসনের উদ্দেশ্যে আহ্বান জানায়।

 

মৃত ছাত্র রোহিতের পরিবারের পক্ষ থেকে আজ (সোমবার) বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে অবস্থান ধর্মঘটে বসেছে ছাত্ররা। তারা বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে এ ঘটনার প্রতিবাদে আজ তুমুল বিক্ষোভ দেখায়।

 

অন্যদিকে, আজ (সোমবার) এ ঘটনায় কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বন্ডারু দত্তাত্রেয়’র বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া ভিসি আপ্পারাওয়ের বিরুদ্ধেও মামলা দায়ের করা হয়েছে। আজ সকালে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে ৮ ছাত্রকে গ্রেফতার করে এবং মৃত ওই দলিত গবেষক ছাত্রের লাশ ময়না তদন্তের জন্য নিয়ে যায়।

 

গুন্টুরের বাসিন্দা রোহিত ভেমুলা হায়দ্রাবাদ বিশ্ববিদ্যালয়ের হোস্টেলে থাকতেন। আম্বেদকর স্টুডেন্টস ইউনিয়নের সঙ্গে যুক্ত ওই ছাত্র সামাজিক সমীক্ষায় বিজ্ঞান প্রযুক্তির ব্যবহার নিয়ে তিনি পিএইচডি করছিলেন। গত বছর আগস্টে আরএসএস-এর ছাত্র সংগঠন এবিভিপি’র ছাত্রদের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে রোহিত এবং অন্য ৪ দলিত ছাত্র। তদন্ত কমিটিতে দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় ১২ দিন আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের হোস্টেল, প্রশাসনিক ভবন, গ্রন্থাগার এবং মেসে প্রবেশ নিষিদ্ধ হয় তাদের।

 

সংবাদে প্রকাশ, বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে প্রাথমিক তদন্তে রোহিতসহ অন্য ছাত্রদের নির্দোষ বলা হয়। যদিও অভিযোগ উঠেছে কেন্দ্রীয়মন্ত্রী বন্ডারু দত্তাত্রেয় শিক্ষামন্ত্রী স্মৃতি ইরানিকে চিঠি লেখার পরেই সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

 

কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত ‘বৈষম্যমূলক’ দাবি করে এর প্রতিবাদে ওই ছাত্ররা আন্দোলন শুরু করে। গত ১২ দিন ধরে তারা টানা অবস্থান কর্মসূচি চালায়। ছাত্রদের সমর্থনে ১০ টি সংগঠনের পক্ষ থেকে রোববার রিলে অনশন কর্মসূচি পালন করা হয় এবং নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করার দাবি জানানো হয়।

 

ক্ষুব্ধ ছাত্রদের পক্ষ থেকে বিজেপি সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বন্ডারু দত্তাত্রেয়-র বিরুদ্ধে এসসি-এসটি অ্যাক্ট অনুযায়ী মামলা দায়ের করার দাবি জানানো হয়। ছাত্রদের অভিযোগ, তিনি ওই গবেষক ছাত্রদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেয়ার জন্য কেন্দ্রীয় মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রীকে চিঠি লিখেছিলেন। অবশেষে ছাত্রদের দাবি মেনে ওই কেন্দ্রীয়মন্ত্রীর বিরদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ।#

 

রেডিও তেহরান/এমএএইচ/জিএআর/১৮

 

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন