এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
মঙ্গলবার, 26 এপ্রিল 2016 16:25

জাতিসংঘের প্রস্তাব অনুযায়ী কাশ্মির সমস্যার সমাধানের দাবি এজাজের

জাতিসংঘের প্রস্তাব অনুযায়ী কাশ্মির সমস্যার সমাধানের দাবি এজাজের

ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে পররাষ্ট্র সচিবদের মধ্যে এক বৈঠকে কাশ্মির ইস্যুতেই জোর দিল পাকিস্তান। আজ (মঙ্গলবার)‘সিনিয়র অফিসিয়ালস মিটিং অফ দ্য হার্ট অফ এশিয়া-ইস্তাম্বুল প্রোসেস’-এ যোগ দিতে ভারতের নয়া দিল্লিতে আসেন পাক পররাষ্ট্র সচিব এজাজ আহমদ চৌধুরী। এই বৈঠকের অবকাশে আলোচনায় বসেন ভারতের পররাষ্ট্র সচিব এস জয়শঙ্কর এবং পাকিস্তানের পররাষ্ট্র সচিব এজাজ আহমদ চৌধুরী।

 

পাকিস্তানের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, দ্বিপাক্ষিক আলোচনার ক্ষেত্রে কাশ্মিরই প্রধান ইস্যু এবং জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাব ও কাশ্মীরি জনতার আকাঙ্খার ভিত্তিতে এই সমস্যার সমাধান করতে হবে। পাকিস্তান এই বৈঠকে কথিত ‘র’ কর্মকর্তা কুলভূষণ যাদবের গ্রেফতারের বিষয়টি তোলে এবং অভিযোগ করে ‘র’ করাচি এবং বালুচিস্তানে ভুল তৎপরতায় জড়িত রয়েছে।

 

পাকিস্তান সমঝোতা বিস্ফোরণে অভিযুক্তদের রেহাই প্রসঙ্গেও উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।

 

নয়া দিল্লির সাউথ ব্লকে অনুষ্ঠিত গুরুত্বপূর্ণ এই বৈঠকে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব এস জয়শঙ্কর, পাকিস্তানের পররাষ্ট্র সচিব এজাজ আহমদ চৌধুরী এবং ভারতে নিযুক্ত পাক রাষ্ট্রদূত আব্দুল বাসিত উপস্থিত ছিলেন।

 

আজ প্রায় পৌনে দুই ঘণ্টা ধরে চলা এই বৈঠকে ভারতের পক্ষ থেকে অত্যন্ত জোরের সঙ্গে পাকিস্তানের সামনে সন্ত্রাসবাদ ইস্যু তুলে ধরা হয়। ভারতের পাঠানকোট বিমান ঘাঁটিতে সন্ত্রাসী হামলা নিয়ে পাকিস্তানে তদন্ত তীব্র করার জন্য দাবি জানানো হয়েছে।

 

ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বিকাশ স্বরূপ বলেন, ভারত পাকিস্তানকে তদন্তের কাজে গতি বাড়ানোর জন্য বলেছে এবং দুটি দেশই সন্ত্রাসবাদ সমস্যা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। আমরা পাকিস্তানে অপহৃত সাবেক নৌবাহিনীর কর্মকর্তা কুলভূষণ যাদবকে কূটনৈতিক সাহায্যের অনুমতি প্রদান করার জন্য অনুরোধ করেছি।

 

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র বলেন, দুটি দেশই মৎস্যজীবী এবং কারাগারে বন্দিদের বিষয় মানবিকভাবে দেখার জন্য একমত হয়েছে।

পাক পররাষ্ট্র সচিব আশা প্রকাশ করেন দুটি দেশই এভাবে উচ্চপর্যায়ের সম্পর্ক অব্যাহত রাখবে এবং পারস্পারিক আস্থা উন্নত ও আলোচনা প্রক্রিয়া ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।

 

সম্প্রতি ভারতে নিযুক্ত পাক হাই কমিশনার আব্দুল বাসিত মন্তব্য করেন, দ্বিপাক্ষিক শান্তি প্রক্রিয়া বাতিল হয়ে গেছে। তার এই মন্তব্যকে কেন্দ্র করে কূটনৈতিক মহলে বিতর্ক সৃষ্টি হয়। যদিও সেই বিতর্ক স্তিমিত না হতেই দুই দেশের পররাষ্ট্র সচিবরা নয়া দিল্লিতে বৈঠকে বসলেন।#

 

এমএএইচ/জিএআর/২৬

 

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন