এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla

সাবেক সৌদি গোয়েন্দা প্রধান তুর্কি আল ফয়সাল বলেছেন, সৌদি সরকার ইসরাইলের সঙ্গে সব ক্ষেত্রে সার্বিক সহযোগিতা করতে আগ্রহী।

 

তিনি গতকাল (শুক্রবার) ইহুদিবাদী ইসরাইলের সাবেক মেজর জেনারেল ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা ইয়াকোভ আমিদরোর-এর সঙ্গে ওয়াশিংটন ইন্সটিটিউটে অনুষ্ঠিত এক সংলাপে এই মন্তব্য করেছেন। টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হয় এই সংলাপ।

 

ফয়সাল বলেছেন, ‘ইহুদিদের সম্পদ ও আরবের মগজের ক্ষমতা বা ব্রেইন পাওয়ার ব্যবহার করে নানা ক্ষেত্রে বহু সাফল্য অর্জন করা সম্ভব।’ 

 

আমিদরোর তার বক্তব্যে বলেছেন, ইহুদিবাদী ইসরাইল ইরানের পরমাণু কর্মসূচির ব্যাপারে গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। ইরান একটি পরমাণু বোমা তৈরির ক্ষমতা হয়তো অর্জন করে ফেলেছে বলে তিনি হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। 

 

ইসরাইলের সাবেক মেজর জেনারেল ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা হিজবুল্লাহর ক্ষেপণাস্ত্র-ক্ষমতাকে মারাত্মক হুমকি হিসেবে উল্লেখ করে বলেছেন, এই প্রতিরোধ আন্দোলনের হাতে রয়েছে এক লাখেরও বেশি ক্ষেপণাস্ত্র এবং সেগুলো ইসরাইলের যে কোনও স্থানে আঘাত হানতে সক্ষম। 

 

উল্লেখ্য, আগে সৌদি শুরার সদস্য ও সাবেক জেনারেল আনোয়ার এশকিও কয়েকবার ইসরাইলি কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। #

 

 

মু. আমির হুসাইন/৭

 

 

 

লেবাননের জনপ্রিয় ইসলামী প্রতিরোধ আন্দোলন হিজবুল্লাহর উপমহাসচিব শেইখ নায়িম কাসিম বলেছেন, ইহুদিবাদী ইসরাইলকে পুরোপুরি ধ্বংস করে দেয়ার মত সামগ্রী বা উপায়-উপকরণ আমাদের হাতে রয়েছে। 

 

হিজবুল্লাহ দখলদার ইসরাইলকে মোকাবেলার জন্য সর্বোচ্চ মাত্রায় প্রস্তুত রয়েছে বলে তিনি জানান। বিশ্ব সংগ্রামী ওলামা ইউনিয়নের এক বৈঠকে শেইখ নায়িম কাসিম এসব কথা বলেছেন। 

 

হিজবুল্লাহর উপমহাসচিব বলেন, আমরা বিজয়ের ব্যাপারে নিশ্চিত। সংগ্রামী মুজাহিদদের পবিত্র রক্তের সুবাদে লেবানন ও ফিলিস্তিনে ইসরাইল কখনও শান্তি আর স্থিতিশীলতা দেখতে পাবে না বলে তিনি মন্তব্য করেন। 

 

হিজবুল্লাহর উপমহাসচিব ইহুদিবাদী ইসরাইলের প্রতি সৌদি সরকারের সেবাদাসত্বের নিন্দা জানিয়ে বলেছেন, সৌদি সরকার প্রকাশ্যেই ঘোষণা করেছে যে তারা ইসরাইলি পরিকল্পনার সমর্থক ও সহযোগী এবং তারা ফিলিস্তিনে ফিলিস্তিনি জনগণের ফিরে আসার এবং তাদের অধিকার ফিরিয়ে দেয়ার বিরোধী। 

 

শেইখ নায়িম কাসিম ফিলিস্তিনে ইসরাইল ও ফিলিস্তিন নামক দুই রাষ্ট্র গড়ে তোলার আপোষ প্রস্তাবের বিরোধিতা করে বলেন, এই প্রস্তাব ফিলিস্তিনে ইসরাইলি দখলদারিত্বকে বৈধতা দেবে। আমরা সর্বশক্তি দিয়ে তা মোকাবেলা করব।

 

সৌদি সরকার গাজা ও পশ্চিম তীরের ওপর ফিলিস্তিনি কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠার বিনিময়ে ইসরাইলকে স্বীকৃতি দেয়ার একটি প্রস্তাব উত্থাপন করেছে প্রায় দুই দশক আগে। কিন্তু সংগ্রামী ফিলিস্তিনি দলগুলো ও ইসরাইল ওই প্রস্তাবে সাড়া দেয়নি।

 

হিজবুল্লাহর উপমহাসচিব আরও বলেন, বর্তমানে পশ্চিম এশিয়া ও মধ্যপ্রাচ্যে মুসলিম উম্মাহর বিরুদ্ধে হিংস্র পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য ময়দানে সক্রিয় রয়েছে মার্কিন সরকার, ইসরাইল এবং তাকফিরি-ওয়াহাবি সন্ত্রাসীরা। তিনি বলেন, এ অঞ্চলের সব যুদ্ধে লাভ হচ্ছে ইসরাইলের, আর সৌদি সরকারও ইসরাইল ও তাকফিরিদের সহায়তা দিচ্ছে।

 

ইহুদিবাদী ইসরাইল এক সময় মধ্যপ্রাচ্যে অপরাজেয় শক্তি বলে দাবি করলেও হিজবুল্লাহর সঙ্গে দু'টি বড় যুদ্ধে মারাত্মকভাবে বিপর্যস্ত হয়। এর আগে ইসরাইল মাত্র কয়েক ঘণ্টার মধ্যে ৬ টি শক্তিশালী আরব দেশের জোটকে পরাজিত করেছিল।  #

 

মু. আমির হুসাইন/৭

 

 

 

 

ইরান বলেছে, অদূর ভবিষ্যতে তেল রফতানির মাত্রা বাড়ানোর কোনো পরিকল্পনা দেশটির নেই। ইরান বর্তমানে দৈনিক প্রায় ২২ লাখ ব্যারেল তেল রফতানি করছে। ন্যাশনাল ইরানিয়ান ওয়েল কোম্পানি বা এনআইওসি’র আন্তর্জাতিক বিভাগের পরিচালক মোহসিন কামসারি সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপের সময় এ কথা বলেছেন।

 

তিনি বলেন, ইরানের তেল রফতানি বৃদ্ধির বিষয়ে যে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বিশ্বের বাজার পরিস্থিতি এবং অভ্যন্তরীণ সক্ষমতার ভিত্তিতে। দৈনিক তেল রফতানি ২৫ লাখ ব্যারেলের বেশি করার পরিকল্পনা ইরান করছে কিনা জানতে চাওয়া হলে এসব কথা বলেন কামসারি।

 

ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে পরমাণু বিষয়ক চুক্তি সইয়ের পর গত কয়েক মাসে ইরানের দৈনিক তেল রফতানির মাত্রা ২২ লাখ ব্যারেলে পৌঁছেছে।#

 

মূসা রেজা/৭

 

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফকে দেশটির সেনাবাহিনীর সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নের পরামর্শ দেয়া হয়েছে। ক্ষমতাসীন পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ বা পিএমএল-এন’র প্রবীণ নেতারা নওয়াজকে এ পরামর্শ দিয়েছেন বলে আজ (শনিবার) দেশটির একটি ইংরেজি দৈনিক জানিয়েছে।

 

এ ছাড়া, পাক সেনাবাহিনীর সঙ্গে সম্পর্ক বজায় রাখার ক্ষেত্রে তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এর্দোগানের নীতি অনুসরণ না করার পরামর্শও দিয়েছেন ক্ষমতাসীন দলের শীর্ষ পর্যায়ের নেতারা।

 

সেনাবাহিনীর বিষয় নিয়ে বেশি ঘাটাঘাটি করা হলে বর্তমান সরকারের জন্য অনেক সমস্যা সৃষ্টি হবে বলে নওয়াজকে দলীয় পর্যায় থেকে সতর্ক করে দেয়া হয়। এ ছাড়া ভারতের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়ে পাক সেনাবাহিনীর দৃষ্টিভঙ্গি বিবেচনা করার পরামর্শও দেয়া হয়েছে। এ সংক্রান্ত বিষয়ে সেনাবাহিনীর বিপরীতে অবস্থান গ্রহণের প্রয়োজন নেই বলে মনে করেন পিএমএল-এন’র শীর্ষ নেতারা।#

 

মূসা রেজা/৭

 

সাবেক সোভিয়েত প্রজাতন্ত্র জর্জিয়ায় মার্কিন নেতৃত্বাধীন ন্যাটো সামরিক জোটের আসন্ন মহড়ার কঠোর সমালোচনা করেছে রাশিয়া। একে উস্কানিমূলক পদক্ষেপ হিসেবে উল্লেখ করে রাশিয়া বলেছে, এ ধরনের মহড়ার মাধ্যমে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে ককেশীয় অঞ্চলে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টির চেষ্টা করা হবে। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে এসব কথা বলা হয়েছে।

 

এতে আরো অভিযোগ করা হয়, আমেরিকা ও তার মিত্ররা প্রকাশ্যেই তিবলিসের প্রতিশোধপরায়ণ অভিলাষের প্রতি সমর্থন দিচ্ছে। ফলে অস্থিতিশীলতা আরো বাড়ছে বলে বিবৃতিতে উল্লেখ করা হয়।

 

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, 'নোবেল পার্টনার-২০১৬' নামের ন্যাটোর সামরিক মহড়া চলতি মাসের ১১ তারিখে শুরু হয়ে দুই সপ্তাহ চলবে। জর্জিয়ার বাহিনীকে প্রস্তুত করে তোলাই এ মহড়ার অন্যতম উদ্দেশ্য বলে জানানো হয়েছে।

 

মহড়ায় যোগ দেয়ার জন্য এরইমধ্যে মার্কিন আটটি আব্রাহাম ট্যাংক এবং সাতটি ব্রাডলি সাঁজোয়া গাড়িসহ ব্যাপক সামরিক সরঞ্জাম জর্জিয়ায় মোতায়েন করা হয়েছে।#

 

মূসা রেজা/৭