এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
বৃহস্পতিবার, 24 ডিসেম্বর 2015 07:55

‘ইরানের সর্বোচ্চ নেতার চিঠি ইসলামকে প্রতিরক্ষারই উদ্যোগ’

‘ইরানের সর্বোচ্চ নেতার চিঠি ইসলামকে প্রতিরক্ষারই উদ্যোগ’

২৪ ডিসেম্বর (রেডিও তেহরান): ইতালির নওমুসলিম ময়োরো মুরলো বলেছেন, পশ্চিমা যুবসমাজের কাছে ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ীর দ্বিতীয় চিঠি ইসলামকে প্রতিরক্ষারই উদ্যোগ। এতে এটা প্রমাণ করা হয়েছে যে, ইসলাম শান্তির ধর্ম, যুদ্ধ ও রক্তপাতের ধর্ম নয়। পাশ্চাত্যে ইসলামকে দারিদ্র্য, দুর্দশা, অধঃপতন ও ধ্বংসযজ্ঞের সমার্থক বলে মনে করা হয় যার সঙ্গে সত্যের বিন্দুমাত্র সম্পর্ক নেই।

 

তিনি মনে করেন, ইসলামের প্রকৃত স্বরূপ বা বাস্তবতাকে পশ্চিমা যুবসমাজের কাছে স্পষ্ট করার জন্য ইরানের সর্বোচ্চ নেতা তার এই দ্বিতীয় ঐতিহাসিক চিঠিটি লিখেছেন, কারণ সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোর চলমান অপরাধযজ্ঞকে ইসলামের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত বলে অপবাদ দেয়া হচ্ছে। আর একই কারণেই তিনি আগের চিঠিটি লিখেছিলেন।

 

ইতালির এই নওমুসলিম আরও বলেছেন, ইরানের সর্বোচ্চ নেতা পশ্চিমা যুবসমাজের উদ্দেশে তার দ্বিতীয় ঐতিহাসিক চিঠিতে মার্কিন সরকার ও তার সহযোগী শক্তিগুলোকে নিন্দা জানিয়েছেন সন্ত্রাসবাদের প্রতি তাদের সহায়তার প্রতিবাদে। কিন্তু দুঃখজনকভাবে পাশ্চাত্যের মিডিয়াগুলো তা প্রচার করেনি। অথচ সন্ত্রাসীদের নানা অপরাধের পেছনের হাতগুলো সম্পর্কে সঠিক ধারণা অর্জন জরুরি এবং তাদের এসব আচরণের ব্যাপারে প্রতিক্রিয়া দেখাতে হবে।

 

ফ্রান্সে গত ১৩ নভেম্বরের সন্ত্রাসী হামলার প্রেক্ষাপটে গত ২৯ নভেম্বর পশ্চিমা যুবসমাজকে সম্বোধন করে ইরানের সর্বোচ্চ নেতা হযরত আয়াতুল্লাহিল উজমা খামেনেয়ী তার দ্বিতীয় ঐতিহাসিক খোলা চিঠি দিয়েছেন। এর আগে ফ্রান্সে ফরাসি ম্যাগাজিন শারলি এবদোর দফতরে হামলার ঘটনার পর ইউরোপ ও আমেরিকার যুবসমাজকে সম্বোধন করে গত বছরের জানুয়ারি মাসেও একটি খোলা চিঠি দিয়েছিলেন তিনি।#

 

রেডিও তেহরান/এআর/২৪

 

 

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন