এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
রবিবার, 02 মার্চ 2008 19:55

ঈদে মীলাদুন্নবী '০৬

দিন-তারিখের মতানৈক্য পেরিয়ে যে সত্যটি বিশ্বজনীন তা হলো রাসূলের (সা) জন্মদিন একটি পবিত্র দিন ৷ শুভ দিন ৷ আনন্দের দিন ৷ দিনটি রবিউল আউয়ালের বারো হোক কিংবা সতেরো-বিশ্ব মানবতার অনন্য দিশারী হযরত রাসূলে কারীম (সা) মানব মুক্তির শুভ বার্তা নিয়ে পূত পদভার রেখেছিলেন পাপ-পঙ্কিলতায় পূর্ণ এই পৃথিবীর বুকে৷ গভীর অমানিশায় ক্ষুদ্র তারাটিকেও যেমন সুদূর পৃথিবী থেকে জ্বলজ্বলে দেখায় , তারচেয়েও গভীর উজ্জ্বলতা নিয়ে তিনি এসেছিলেন পৃথিবীতে৷ তাঁর শুভ আগমনে তাই আঁধার পৃথিবীর সর্বত্র সাড়া পড়ে যায় ৷ চারদিক যেন আনন্দ- উল্লাস আর প্রশান্তির আমজে ভরে ওঠে ৷ পাখি ডাকে , বায়ু বয় , নানা ফুল ফুটে এক আধ্যাত্মিক পরিবেশের সৃষ্টি হয় বিশ্বময় ৷ তাঁর আগমনে সুষুপ্ত মৃত জনপদ জেগে ওঠে ৷ জেগে ওঠে শতাব্দী ঘুমের পাড়া ৷ আহা ! কী সুন্দর , কী চমত্‍কার আলোর ঐশ্বর্য নিয়ে ঐ তো ছন্দে ছন্দে দোলে মা আমেনার কোল জুড়ে৷ দোলে , যেন মধুপূর্ণিমার এক শুভ্র চাঁদ ৷


তুমি এলে-
বিশ্ব পেল এক অপূর্ব শৃঙ্খলা
কবিতায় তার কতোটা যায় বলা
যেখানে যা ছিল কালো অনিয়ম-জঞ্জাল
যেন আঁধার পেরিয়ে এলো শুভ্র সকাল


তুমি এলে-
কালের যতো ক্ষত , যতো ক্লেদ , যতো পীড়ন
ধুয়ে মুছে যেন নীলাকাশে মেঘমুক্ত সূর্যের কিরণ
মরুভূর বুকে ক্লান্ত পথিক পেল শীতল ছায়ার মেঘ
শোষিতের মুখে হাঁসি,বিশ্বজুড়ে আনন্দের অভিষেক


তুমি এলে-
আমরা পেলাম জন্মের স্বার্থকতা খুঁজে
আপন ঠিকানায় এখন যেতে পারি চোখ বুঁজে
এতোদিন ছিল অজানা , ছিল না পথের কোনো দেখা
তুমি এলে , বুকের ভেতরে এখন পথের চিত্র লেখা ৷


ফুল ফোটে , গন্ধ বিলায় , একটা সময় ঝরে যায় ৷ মানুষ ঝরা ফুলের স্মৃতি ধরে রাখে সারাজীবন আতর-গোলাবে ৷ রাসুল (সা)ও তেমনি পৃথিবীর বুকে সুগন্ধি ছড়িয়ে দিয়ে চলে গেছেন পরপারে৷ রেখে গেছেন তাঁর জীবনস্মৃতি , রেখে গেছেন আদর্শের সৌরভ জ্বলজ্বলে ৷ এ যেন অনন্ত প্রেসক্রিপশন বা প্রতিকারপত্র ৷ মানবতার সকল সমস্যার সমাধান রয়েছে এতে ৷ যখনি মানুষ উপনীত হয় কোনো অসঙ্গতির মুখে , তখনি তার প্রয়োজন পড়ে ৷ আর এই প্রতিকারপত্র সঠিকভাবে দিতে পারেন যাঁরা , তাঁরা হলেন রাসূলেরই আহলে বাইত বা নবীবংশের নিষ্পাপ ইমামগণ ৷ #

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন