এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
শনিবার, 30 এপ্রিল 2016 17:22

ভারতীয় সিরিয়াল দেখতে না দেয়ায় তৃতীয় শ্রেণির স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

ভারতীয় সিরিয়াল দেখতে না দেয়ায় তৃতীয় শ্রেণির স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

পাঠক! আমাদের প্রাত্যহিক অনুষ্ঠান কথাবার্তার আসরে স্বাগত জানাচ্ছি। আজ ৩০ এপ্রিল শনিবার কথাবার্তার আসরের শুরুতেই বাংলাদেশ ও ভারতের গুরুত্বপূর্ণ দৈনিকের বিশেষ বিশেষ খবরের শিরোনাম। এরপর বাছাইকৃত কিছু খবরের গুরুত্বপূর্ণ অংশ।

 

প্রথম আলো অনলাইন: টাঙ্গাইলে দোকান থেকে বের করে এক হিন্দু দর্জিকে কুপিয়ে হত্যা

বাংলাদেশ প্রতিদিন অনলাইন: বদলির জন্য 'তদবিরে উল্টো ফল হবে'- শিক্ষামন্ত্রী

ইত্তেফাক অনলাইন: ২০১৫০১০১৬ অর্থবছরে ‘৬ দশমিক ৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হতে পারে-বিশ্বব্যাংক

মানবজমিন: যৌন হয়রানি: আহসানউল্লাহর শিক্ষক বরখাস্ত

 

ভারতের খবর:

 

আনন্দবাজার: ‘মেরে বের করে দিন সিপিএম এজেন্টকে’সোনালির বিরুদ্ধে এফআইআর-এর নির্দেশ

সংবাদ প্রতিদিন: লাল আতঙ্ক এখনও তাড়া করে বেড়ায় নেতাইকে

এইসময় অনলাইন: শান্তিতে ভোট, খুচরো গোলামাল

 

তো, শ্রেতাবন্ধুরা! শিরোনামের পর এবার বাংলাদেশ ও ভারতের -সবচেয়ে আলোচিত খবরের গুরুত্বপূর্ণ অংশ তুলে ধরছি।

 

মানুষ পুড়িয়ে ব্যর্থ হয়ে বেছে বেছে গুপ্ত হত্যা: প্রধানমন্ত্রী- দৈনিক ইত্তেফাকসহ বেশ কয়েকটি দৈনিকে প্রকাশিত এ খবরে লেখা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সরকার উত্খাত করতে না পেরে বিএনপি জামায়াত এখন গুপ্ত হত্যা করছে। বেছে বেছ মানুষ হত্যা করছে। মানুষ পুড়িয়ে মারা ও ধ্বংস ছাড়া তারা কিছুই করতে পারে না।

 

শনিবার গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার ঘোনাপাড়ায় শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব চক্ষু হাসপাতাল ও প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে সুধী সমাবেশে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

 

শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি জামায়াত ক্ষমতায় থাকতে গির্জা, প্যাগোডা, মন্দির ও মসজিদে বোমা হামলা হয়েছে। তারা দেশে উন্নয়ন চায় না, এটাই বাস্তবতা।

 

এদিকে ইত্তেফাকের অন্য একটি খবরের শিরোনাম খুনিদের আড়াল করতে চাইছে সরকার: নজরুল

সাম্প্রতিক হত্যাকাণ্ডগুলোর জন্য বিএনপি-জামায়াতকে দায়ী করে সরকার খুনিদের আড়াল করতে চাইছে বলে দাবি বলেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। শনিবার পুরানা পল্টনে এক আলোচনা সভায় তিনি এ দাবি করেন।

 

নজরুল ইসলাম খান বলেন, যখনই কেউ মারা যায়, তখন সারিন্দা বাজানোর মতো বলেই চলছে যে, এর জন্য বিএনপি-জামায়াত দায়ী। তদন্ত ও বিচারকে প্রভাবিত করার ফলেই এই হত্যাকান্ড বন্ধ হচ্ছে না। কারণ যারা আসল অপরাধী তাদেরকে আড়াল করে দেয়া হচ্ছে এবং তাদেরকে সুযোগ করে দেয়া হচ্ছে পার পেয়ে যাওয়ার জন্য। তিনি বলেন, বিএনপি খুন-হত্যা-সন্ত্রাসের রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না

 

.......

 

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হত্যা‘কারণ খোঁজার অর্থই হলো খুনকে বৈধতা দেয়া’এ শিরোনামটি দৈনিক ইত্তেফাকের।

 

রাজশাহীতে নিহত শিক্ষক রেজাউল করিমের ছেলে রিয়াসাদ ইমতিয়াজ সৌরভ বলেছেন, আমার আব্বুর সবচেয়ে বড় দোষ হলো সত্য কথা বলা। কারো ধার ধারতেন না। আমার বাবাকে কি কারণে হত্যা করা হয়েছে সেটা খোঁজার জন্য আমরা ব্যস্ত। তিনি আস্তিক ছিলেন, না নাস্তিক ছিলেন সেটা নিয়ে সবাই মাথা ঘামাচ্ছেন। কিন্তু তাকে কে হত্যা করল সেদিকে কারো ভ্রুক্ষেপ নেই। আমার বাবার খুনের কারণ না খুঁজে খুনিদের বের করাটাই জরুরি। খুনের কারণ খোঁজার অর্থ হলো খুনকে অনেকটাই বৈধতা দেয়া।

 

শনিবার সাড়ে ১০টার দিকে শিক্ষক হত্যার বিচার দাবিতে গঠিত মুকুল মঞ্চে ইংরেজি বিভাগের উদ্যোগে আয়োজিত সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি।

 

........

 

‘মাফিয়াদের চোখ বাংলাদেশে’ এ শিরোনামটি দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিনের।

অনুসন্ধানী এ প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের দিকে শ্যেন দৃষ্টি পড়েছে আন্তর্জাতিক মাফিয়া চক্রের। মানব পাচার, স্বর্ণ চোরাচালান, হেরোইন-কোকেনের মতো মাদক পাচারে মাফিয়া চক্রের সংশ্লিষ্টতা ছিল আগে থেকেই। এখন বাংলাদেশের আর্থিক খাতের দিকে দৃষ্টি এ চক্রের। সরকারি-বেসরকারি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের প্রযুক্তি-নিরাপত্তা ভাঙা বা হ্যাকিং এবং ঋণ বা এলসির আড়ালে বিভিন্ন অপকৌশলে বড় অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেওয়াই লক্ষ্য মাফিয়া চক্রের। স্থানীয় বাংলাদেশিদের বিভিন্নভাবে ব্যবহার করে আন্তর্জাতিক মাফিয়া চক্রের বিদেশি সদস্যরাই তাদের লক্ষ্য হাসিল করতে চায়। সর্বশেষ বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ হ্যাকিংয়ের তদন্তে এমন ইঙ্গিতই পাচ্ছে গোয়েন্দা সংস্থাগুলো।

 

.......

 

প্রথম আলোর শিরোনাম-তীব্র দাবদাহে পুড়ছে পুরো দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া। এ অঞ্চলের ওপর দিয়ে যে তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে, তা এযাবৎকালের রেকর্ড ভেঙে দিচ্ছে। প্রাণঘাতী এ তাপপ্রবাহে এরইমধ্যে ১৫০ জন মারা গেছে।

 

দাবদাহ সম্পর্কে দৈনিক যুগান্তরের শিরোনাম ‘গ্রীষ্মের দাবদাহে পুড়ছে দেশ’। দেশের অনেক এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে খরা বিরাজ করলেও কোনো কোনো এলাকায় অতিবর্ষণের কারণে বন্যাও দেখা দিয়েছে। অনাবৃষ্টির কারণে দেশের বহু এলাকায় মাঠের ফসল যখন পুড়ছে, তখন সিলেটে প্লাবনে নষ্ট হচ্ছে হাওর এলাকার ফসল। আবহাওয়াবিদদের মতে, ‘এল নিনো’র প্রভাবে প্রকৃতিতে বেসামাল অবস্থার সৃষ্টি হচ্ছে। এল নিনোর প্রভাবে আফ্রিকা ও ভারতেও চলছে খরা। বাংলাদেশেও দাবদাহ চলছে প্রায় ২৪ দিন ধরে। তারসাথে শুরু হয়েছে নানা রোগব্যাধী।

 

......

 

এবার একটি মর্মান্তিক খবর। দৈনিক ইনকিলাবের খবরটির শিরোনাম-ভারতীয় সিরিয়াল দেখতে না দেয়ায় মা-বাবার ওপর অভিমান করে সাতক্ষীরার কলারোয়ায় তৃতীয় শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। গতরাতে উপজেলার দেয়াড়া গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। এরআগে পাকি পোষাক না পেয়ে বেশ কয়েকটি আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে। ভারতীয় অপসংস্কৃতির প্রভাবে বাংলাদেশের সমাজে এসব মর্মান্তিক ঘটনা ঘটছে।

 

.......

 

সিম নিবন্ধনের সময় এক মাস বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। আগামী ৩১ মে পর্যন্ত সিম নিবন্ধন করা যাবে। ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছেন। খবরটি সমকালসহ সব দৈনিকে এসেছে। এদিকে ইত্তেফাকের খবরে বলা হয়েছে, বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে সিম পুনর্নিবন্ধন করতে গিয়ে শেষ মুহূর্তে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন গ্রাহকরা।

 

এই ভোগান্তির মধ্যেই আবার যোগ হয়েছে রিটেলারদের অবৈধভাবে টাকা আদায়। অনেক জায়গায় ৫০-১০০ টাকা রেট নির্ধারণ করে আদায় করা হচ্ছে। এ নিয়ে গ্রাহকদের নিবন্ধনকারীদের তর্কাতর্কি- এমনকি হাতাহাতির ঘটনাও ঘটেছে। বাধ্য হয়েই গ্রাহকরা টাকা দিয়েই কাজ শেষ করছেন। আরেকটি খবরে বলা হয়েছে, সিম নিবন্ধনে ৩৬৫ কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ করেছে বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশন ও ভোক্তা অভিযোগ নিষ্পত্তি উপকমিটি নামে দুই সংগঠন।

 

টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেন, ‘টাকা আদায়ের ব্যাপারে আমরা কঠোর নির্দেশনা দিয়েছি। তারপরও এটা হয়েছে।

 

......

 

বাংলাদেশের পর ভারতের দৈনিকগুলোর নির্বাচন সম্পর্কিত খবরের চুম্বক অংশ

 

পশ্চিমবঙ্গের ৫ ম দফার ভোটে বিরোধী এজেন্টেকে হুমকির অভিযোগ- বিতর্কে সোনালী। এ খবরটি দৈনিক সংবাদপ্রতিদিনের। দৈনিক বর্তমান অনলাইনের খবর-কড়া নিরাপত্তায় চলছে পঞ্চম দফার ভোটগ্রহণ। বিধানসভার ষষ্ঠ দিনের ভোটে আদতে রাজ্য-রাজনীতির রথী-মহারথীদের পরীক্ষা। এতে বলা হয়েছে, এই দীর্ঘ ভোটপর্বের আজ সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়। কারণ, আজ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভোট পরীক্ষা।

 

তো পাঠক! এই ছিল আজকের কথাবার্তার আসরে সর্বশেষ গুরুত্বপূর্ণ খবরের অংশ। এতক্ষণ আমাদের সাথে থাকার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ। সবাই ভালো থাকবেন।#

 

গাজী আবদুর রশীদ/৩০

 

মাধ্যম

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন