এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
শুক্রবার, 06 মে 2016 19:39

সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় সংবিধান পরিপন্থি: আইনমন্ত্রী

সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় সংবিধান পরিপন্থি: আইনমন্ত্রী
পাঠক! আমাদের প্রাত্যহিক অনুষ্ঠান কথাবার্তার আসরে স্বাগত জানাচ্ছি। আজ ৬ মে শুক্রবারের কথাবার্তার আসরের শুরুতেই বাংলাদেশ ও ভারতের গুরুত্বপূর্ণ দৈনিকের বিশেষ বিশেষ খবরের শিরোনাম। এরপর বাছাইকৃত কিছু খবরের গুরুত্বপূর্ণ অংশ।

ইত্তেফাক অনলাইন: হুইপ আতিকুরকে এলাকা ছাড়ার নির্দেশ

বাংলাদেশ প্রতিদিন: 'বিএনপি ক্ষমতায় গেলে নিজেদের উন্নয়ন হয় দেশের নয়'-নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান

যুগান্তর অনলাইন: নৌমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে নেতাদের সঙ্গে তর্ক, ইউএনওকে পিটিয়ে হাসপাতালে

ভারতের খবর:

আনন্দবাজার: অনেক প্রশ্ন মাথায় নিয়েই ভোটে গেল নন্দীগ্রাম

বর্তমান অনলাইন: মোদির শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে বিতর্কের ইস্যুতে দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে চিঠি কেজরিওয়ালের

তো, শ্রেতাবন্ধুরা! শিরোনামের পর এবার বাংলাদেশ ও ভারতের -সবচেয়ে আলোচিত খবরের গুরুত্বপূর্ণ অংশ তুলে ধরছি।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তার সরকার অপরাধীদের ছাড় দিচ্ছে না। দলীয় সাংসদেরা অপরাধ করলে তাদেরও বিচারের আওতায় আনা হচ্ছে। তিনি বলেন, এ দেশে জঙ্গি সন্ত্রাসবাদের কোনো স্থান নেই। জঙ্গি-সন্ত্রাসবাদ নিয়ে অনেকেই খেলতে চাইবে। কিন্তু সেই খেলা আমি খেলতে দেব না। গতকাল রাতে দশম জাতীয় সংসদের দশম অধিবেশনের সমাপনী বক্তৃতায় শেখ হাসিনা এ কথা বলেন। প্রথম আলোয় প্রকাশিত এ খবরে তিনি আরো বলেছেন,তার ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের সম্পদ নিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া যে তথ্য দিয়েছেন তা মিথ্যা। ইতিমধ্যে জয় বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রতি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছেন, সেই তথ্যের সত্যতা প্রমাণের জন্য। আশা করি, বিএনপি চেয়ারপারসন চ্যালেঞ্জের জবাব দেবেন।

........

এদিকে দৈনিক মানবজমিনের খবর- দেশি জঙ্গিদের বিদেশি যোগাযোগ বা নেটওয়ার্ক থাকার কথা আবারও সরকারকে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ঢাকাস্থ মার্কিন দূতাবাসের কর্মী জুলহাজ মান্নানসহ সাম্প্রতিক সময়ে দেশে জঙ্গি কায়দায় একের পর এক হত্যার প্রেক্ষিতে বিষয়টি আরো স্পষ্ট করে গেছেন ঢাকা সফরকারী দেশটির সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়াল। গতকাল সফরের শেষ দিনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আনুষ্ঠানিক এবং একান্ত সাক্ষাৎ ছাড়াও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক হয়েছে তার। বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে তার সরকারের ‘জিরো টলারেন্স’নীতি পুনর্ব্যক্ত করে বলেন, তার সরকার সবসময়ই সন্ত্রাস এবং জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে উচ্চকণ্ঠ।

আর আইএসআইএলের অস্তিত্ব নাকচ করেছেন স্বারাষ্ট্রমন্ত্রী। মার্কিন মন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বাংলাদেশে আইএসের নেটওয়ার্ক বা যোগসূত্রের বিষয়টি নাকচ করে দিয়ে বলেন, এদেশীয় সন্ত্রাসী সংগঠনগুলো এসব ঘটনা ঘটাচ্ছে বলে আমরা মার্কিন প্রতিনিধিদলকে অবহিত করেছি।

........

মানবজমিনের খবর- সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন সংসদ সদস্যরা। গতকাল জাতীয় সংসদ অধিবেশনে পয়েন্ট অব অর্ডারে আইনমন্ত্রী আনিসুল হকসহ কয়েকজন এমপি রায়ের বিষয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। আনিসুল হক হাইকোর্টের রায়কে ‘সংবিধান পরিপন্থি’ উল্লেখ করে বলেন, আদালতের এই রায় মোটেই গ্রহণযোগ্য নয়। হাইকোর্টের এই রায় সংবিধান পরিপন্থি, তাদের এই রায় দেওয়ার কোনো এখতিয়ার নেই।

প্রথম আলোর খবর-আমরা ক্ষমতায় বলেই তারা বিচারক হয়েছেন একথা বলেছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। তিনি বলেছেন, ‘যারা বিচারক, তাদের আমরা চিনি, জানি। আমরা ক্ষমতায় বলেই তারা বিচারক হয়েছেন।

এদিকে দৈনিক ইত্তেফাকের খবরে বলা হয়েছে, বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, 'বিচারপতিদের অপসারণ-সংক্রান্ত সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিল করে হাইকোর্ট যে রায় দিয়েছে, তা যুগান্তকারী, মনুমেন্টাল (অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ)। এই রায়ের মাধ্যমে বিচার বিভাগের ভাবমর্যাদা বৃদ্ধি পেল। উচ্চ আদালত সম্পর্কে জনগণের আস্থা আরো দৃঢ়তর হলো। আজ নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এ মন্তব্য করেন।

............

জামায়াতের আমির মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর রিভিউ আবেদন খারিজ এবং মৃত্যুদণ্ড বহাল থাকার খবরটি আজকের সবগুলো জাতীয় দৈনিকে ছাপা হয়েছে। এসম্পর্কে দৈনিক ইত্তেফাকের খবর- জামায়াতে ইসলামীর আমির মাওলানা মতিউর রহমান নিজামীর আপিলের রায়ের বিরুদ্ধে করা পুনর্বিবেচনা (রিভিউ) আবেদন খারিজ করে দেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। এতে করে নিজামীর বিরুদ্ধে দেয়া মৃত্যুদণ্ডাদেশ বহাল থাকে। গতকাল প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এস কে) সিনহার নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের বেঞ্চ এ রায় দেন। রায়ে রিভিউ আবেদন খারিজ হওয়ায় সব আইনি প্রক্রিয়া শেষ হলো। বাকি থাকল নিজামীর প্রাণভিক্ষার বিষয়টি।

আর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল আজ বলেছেন, 'সব আইনি প্রক্রিয়া শেষ করেই মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে মৃত্যুদণ্ডাদেশ প্রাপ্ত জামায়াতের আমির মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসির রায় কার্যকর করা হবে।' স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, 'মতিউর রহমান নিজামীর ফাঁসি কার্যকরে সরকার তাড়াহুড়ো করবে না। সব আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার পর নিজামীর ফাঁসি কার্যকর করা হবে।'

এদিকে আজ একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতের আমির মতিউর রহমান নিজামীর সঙ্গে কাশিমপুর কারাগারে দেখা করলেন তার স্ত্রী, দুই ছেলে ও তাদের পুত্রবধূ এবং মেয়ে। আজ শুক্রবার সকাল ১০টা ৫৫ মিনিটে কারা ফটকে তাদের এ সাক্ষাৎ হয়।

......

মানবজমিনের খবর-সুন্দরী ছাত্রীকে টার্গেট করতো শিক্ষক মাহফুজুর রশিদ ফেরদৌস। এরপর নানা কায়দায় তাকে কাবু করতো। এসব করতে গিয়ে তিনি এখন ধরা পড়েছেন। আহছান উল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে এখন শিক্ষক ফেরদৌসকে নিয়েই ব্যাপক আলোচনা। ৫ জন ছাত্রী তার বিরুদ্ধে সুস্পষ্ট অভিযোগ করেছে। তারা বলেছে, ফেরদৌসের মূল টার্গেট ছিল সুন্দরী ছাত্রীরা। তার চোখে পড়লেই ইনিয়ে বিনিয়ে কথা বলতো। সময়-সুযোগে ফাস্টফুডের দোকানে খাবারের অফার দিতো। খাবারের সায় পেলেই নানান উপহার-উপঢৌকন পাঠাতো। এরপর পড়া, থিসিস বোঝানোর কথা বলে পান্থপথের বাসায় আসার অফার। বাসায় এলেই কখনো জোর করে, কখনো ব্ল্যাকমেইল করে যৌন হয়রানি করতো। ওদিকে এই শিক্ষকের স্থায়ী বহিষ্কারের দাবিতে আহসান উল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয় ক্রমেই উত্তাল হয়ে উঠছে।

.......

গত তিন দফা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ, বিতর্কিত ও বিকৃত হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজন। নাগরিক সংগঠনটির কর্মকর্তারা বলেছেন, এবারের নির্বাচন অস্ত্রের ঝনঝনানিতে পরিণত হয়েছে। প্রকাশ্যে অস্ত্র প্রদর্শন করা হচ্ছে । তিন দফা নির্বাচনের প্রাণহানির চিত্র তুলে ধরে সুজন সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেন, প্রত্যেকটা প্রাণের গুরুত্ব আছে। ইত্তেফাক, যুগান্তর, মানবজিমনসহ প্রায় সব দৈনিকে খবরটি ছাপা হয়েছে।

........

বাংলাদেশের পর এবার ভারতের গুরুত্বপূর্ণ খবরের চুম্বক অংশ তুলে ধরছি।

ব্যারিকেড ভেঙে সংসদের পথে মিছিল, গ্রেফতার সনিয়া-মনমোহন- পরে মুক্ত- এ শিরোনামের খবরে দৈনিক আনন্দবাজার লিখেছে, গণতন্ত্র বাঁচানোর দাবিতে সনিয়া-মনমোহনের নেতৃত্বে নয়াদিল্লির রাজপথে শুক্রবার কংগ্রেসের মিছিল মাঝপথেই ব্যারিকেড দিয়ে আটকে দেয় পুলিশ। সনিয়ার নেতৃত্বে সেই ব্যারিকেড ভেঙে সংসদের দিকে এগোতে গেলে তখনই আটক করা হয় সনিয়া গাঁধী-সহ কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্বকে। পরে তাদেরকে মুক্ত করে দেয়া হয়।গ্রেফতার বরণ করার আগে এ দিন মোদী সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন সনিয়া গান্ধী।

দৈনিকটির অন্য একটি খবরের বলা হয়েছে, এক ঘর লোকজনের সামনে তরুণীকে জিনসের বোতাম খুলতে বাধ্য করলেন বিজেপি সাংসদ সাক্ষী মহারাজ। প্রায় জোর করে জিনসের বোতাম খুলিয়ে ক্ষতস্থান দেখার সেই ভিডিও ভাইরাল হয়েছে ইন্টারনেটে। তাতে তুমুল বিতর্কে জড়িয়েছেন উন্নাও-এর বিজেপি সংসদ সদস্য। তীব্র নিন্দা শুরু হয়েছে বিভিন্ন মহলে।

তো পাঠক! এই ছিল আমাদের কথাবার্তার আসরে সর্বশেষ খবরের গুরুত্বপূর্ণ অংশ। এতক্ষণ আমাদের সাথে থাকার জন্য অনেক অনেক ধন্যবাদ এবং সবাই ভালো থাকবেন।#

গাজী আবদুর রশীদ/৬

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন