এই ওয়েবসাইটে আর আপডেট হবে না। আমাদের নতুন সাইট Parstoday Bangla
সোমবার, 25 জানুয়ারী 2016 18:59

পশ্চিমবঙ্গে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা: স্বামী আটক, বিচার দাবি

পশ্চিমবঙ্গে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যা: স্বামী আটক, বিচার দাবি

২৫ জানুয়ারি (রেডিও তেহরান): পশ্চিমবঙ্গের উত্তর ২৪ পরগণা জেলার গোপালনগরে প্রকাশ্য দিবালোকে স্ত্রীকে কুপিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠেছে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। গোপালনগর থানার চৌবেড়িয়া এলাকায় আজ (সোমবার) দুপুরের এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

 

ঘটনাস্থলে পুলিশ গেলে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে স্থানীয় জনতা। তাদের দাবি, আসামীকে সন্দীপ সরকারকে এভাবে গ্রেফতার করে নিয়ে গেলে চলবে না। এর ‘উপযুক্ত বিচার’ তারাই করবেন। ক্ষুব্ধ জনতা অভিযুক্ত সন্দীপকে পুলিশের হাত থেকে ছিনিয়ে নিয়ে মারধর করার চেষ্টা করে। তাকে মারধর করার চেষ্টা করলে পুলিশের গায়েও এসে পড়ে কয়েকটি ঢিল। যদিও তাদের উপর উত্তেজিত জনতার হামলা করার কোনো উদ্দেশ্য ছিল না বলে পুলিশ জানিয়েছে। পুলিশ অবশ্য শেষমেশ ক্ষুব্ধ জনতার রোষের হাত থেকে কোনক্রমে অভিযুক্ত স্বামী সন্দীপ সরকারকে গ্রেফতার করে নিয়ে যেতে সমর্থ হয়। নিহত লক্ষ্মী সরকারের লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

 

আজ সন্ধ্যায় পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে তার বিরুদ্ধে খুনের মামলা রুজু করা হয়েছে। যে অস্ত্র দিয়ে লক্ষ্মীকে কোপানো হয়েছিল, সেটিও উদ্ধার করা হয়েছে।

 

পুলিশ এবং স্থানীয় সূত্রে প্রকাশ, নিজ বাড়িতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথাকাটাকাটির জের ধরে এই নৃশংস খুনের ঘটনা ঘটে। লক্ষ্মী সরকার নামে ২৫ বছর বয়সী ওই গৃহবধূকে ঘাড়ে এবং গলায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয় বলে অভিযোগ। নিহত ওই গৃহবধূর দুটি ছোট শিশু সন্তান রয়েছে।

 

প্রতিবেশী গৌতম দাস জানান, এই গ্রামেরই অত্যন্ত শান্তশিষ্ট স্বভাবের মেয়ে ছিল লক্ষ্মী। প্রায়ই তাকে মারধর করা হতো। স্বামী সন্দীপ সরকার লক্ষ্মীকে সন্দেহ করত বলেও জানান গৌতম।

 

স্থানীয় এক গৃহবধূ জানান, লক্ষ্মীর উপর আক্রমণের সময় তাকে বাঁচানোর জন্য চেষ্টা করতে গেলে তাকে মেরে ফেলার হুমকি দেয়া হয়। মূলত তার প্রচেষ্টাতেই আশেপাশের লোকজন বিষয়টি জানতে পারে এবং পরে পুলিশে খবর যায়। এ নিয়ে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।#

 

রেডিও তেহরান/এমএএইচ/এআর/২৫

 

 

 

মাধ্যম

মন্তব্য লিখুন


Security code
রিফ্রেস দিন